হাসপাতালে নেই অক্সিজেন, মধ্যপ্রদেশে মারা গেলেন ১২ জন করোনা রোগী

57

মহানগর ডেস্ক: করোনার গ্রাফ ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী। হাসপাতালে মিলছে না বেড। এই পরিস্থিতে আবারও করোনায় প্রাণ হারাল একসঙ্গে ১২ জন। জানা গিয়েছে, শনিবার মধ্যরাতে মধ্যপ্রদেশের শাহদোল মেডিক্যাল কলেজে অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু হয়েছে তাঁদের।শাহদোল মেডিক্যাল কলেজের ডিন ডক্টর মিলিন্দ শিরালকার জানিয়েছেন, করোনা আক্রান্ত ১২ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে অক্সিজেনের অভাবে। মৃত রোগীদের পরিবারও একই অভিযোগ জানিয়েছে হাসপাতালের বিরুদ্ধে।

তবে এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ত্রেট অর্পিত ভর্মা। তিনি জানিয়েছেন, ‘শাহদোল মেডিক্যাল কলেজে করোনা মোকাবিলার সমস্ত ব্যবস্থা রয়েছে। অক্সিজেনের অভাবের ওই ১২ জন রোগীর মৃত্যু হয়নি।’
এই প্রসঙ্গে মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ জানিয়েছেন, রাজ্য সরকার করোনা আক্রান্তদের অক্সিজেন সরাবরাহের তথ্য গোপন করছে। এছাড়াও তিনি বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে টুইট করে লিখেছেন, ‘অক্সিজেনের অভাবে ভোপাল, ইন্দোর, উজ্জয়ীনি, জব্বলপুরে এতো জন রোগীর মৃত্যুর পরেও কি রাজ্য সরকারের ঘুম ভাঙছে না?’

প্রসঙ্গত, করোনাআক্রান্ত দের অক্সিজেনের অভাব যাতে না হয় সেই কারণে কেন্দ্রীয় সরকার মধ্যপ্রদেশে কমপক্ষে পাঁচটি PSA (প্রেশার সুইং অ্যাডরপশন) স্থাপন করেছে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসতেই গোটা ভারতবর্ষের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে অক্সিজেনের ঘাটতির খবর আসছে। দিল্লিতেও অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তবে ইতিমধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কেন্দ্রীয় সরকার অক্সিজেনের নিরবিছিন্ন পরিষেবার জন্য জরুরি নির্দেশ জারি করেছে।