৩ সপ্তাহে ৩৭২ জনের মৃত্যু, উদ্বেগ বাড়ছে রাজ্যে

22

মহানগর ডেস্ক: গোটা দেশের মধ্যে রাজ্যে ঊর্ধ্বমুখী করোনা সংক্রমনের সংখ্যা। প্রায় প্রতিদিন নিয়ম করে বেড়ে চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। কিন্তু গত কয়েকদিনের বুলেটিন অনুযায়ী আক্রান্তের সংখ্যা কম। তবে গত তিন-চার দিন ধরে যে সংখ্যাটা উদ্বেগ বাড়াচ্ছে তা হল মৃতের সংখ্যা। রবিবার দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৪ হাজারের কিছু বেশি। তবে, একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৩৬ জনের। শুধু তাই নয়, শনিবারের বুলেটিন অনুসারে একদিনে মৃতের সংখ্যা ছিল ৩৯ ও শুক্রবার সংখ্যাটা ছিল ২৮। গত ৩ সপ্তাহে রাজ্যে মোট ৩৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে শিশুও।

রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের রিপোর্ট অনুযায়ী আক্রান্তের সংখ্যার তুলনায় তৃতীয় ঢেউয়ের ক্ষেত্রে মৃতের সংখ্যা অনেকটা কম। তবে, ৩৭২ জনের মৃত্যু নেহাত কম নয় বলেই মনে করছেন রাজ্যের বিশেষজ্ঞরা। তৃতীয় ঢেউয়ে এ রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২ লক্ষ ৬৬ হাজার ৬৩৪। আর মৃত্যু হয়েছে ৩৭২ জনের। মৃত্যু হার ০.১৩ শতাংশ। ৩৭২ জনের মধ্যে, ২৮৫ জনের কো-মর্বিডিটি অর্থাৎ অন্য কোনও অসুস্থতা রয়েছে। যার মধ্যে ১০১ জনের বয়স ৭৫- এর বেশি। ১৬৭ জনের বয়স ৬১ থেকে ৭৫-এর মধ্যে। ৪৬ থেকে ৬০ বছর বয়সি মৃতের সংখ্যা ৬৬ জন, ৩১ থেকে ৪৫ বছর বয়সি মৃতের সংখ্যা ২১ জন, ১৬ থেকে ৩০ বছর বয়সি মৃতের সংখ্যা ১৪ জন, আর ০ থেকে ৩ বছরের মধ্যে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের করোনা সংক্রান্ত কমিটির সদস্য এই প্রসঙ্গে, কমিটির তরফ থেকে কলকাতার সব হাসপাতালে ঘুরে দেখা হচ্ছে। যাদের মৃত্যু হচ্ছে, তাঁদের মৃত্যুর কারণ কী, তা জানতে তৎপর সদস্যরা। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে, কেউ অসুস্থ হয়ে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি থাকাকালীন করোনা আক্রান্ত হলে, মৃত্যুর সম্ভাবনা বেশি থাকছে।