শেষ ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় আক্রান্ত হলেন রেকর্ড ১৬,৯২২ জন!

7
news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা চার লক্ষ ৭৩ হাজার ছাড়িয়ে গেল। বৃহস্পতিবার সকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী বর্তমানে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ৪,৭৩,১০৫। দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৪,৮৯৪। মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় ইউকে’কে পিছনে ফেলে এখন বিশ্বের চার নম্বর দেশ ভারত। শেষ ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬,৯২২ জন। এই প্রথম ভারতে একদিনে এত মানুষ করোনায় আক্রান্ত হলেন। এই সময়ে প্রাণ হারিয়েছেন ৪১৮ জন। এখনও পর্যন্ত ২,৭১,৬৯৭ জন করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। শেষ ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৩,০১২ জন। ভারতে এই মুহূর্তে এক্টিভ কেস ১,৮৬,৫১৪।

কেন্দ্রের রিপোর্ট অনুযায়ী, এখনও দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব সবচেয়ে বেশি মহারাষ্ট্রে। সেখানে ১,৪২,৯০০ জন করোনা আক্রান্ত, মারা গিয়েছেন ৬৭৩৯ জন। তারপরেই আছে দিল্লি (৭০,৩৯০), তামিলনাড়ু (৬৭,৪৬৮), গুজরাট (২৮,৯৪৩), উত্তরপ্রদেশ (১৯,৫৫৭), রাজস্থান (১৬,০০৯), পশ্চিমবঙ্গ (১৫,১৭৩), মধ্যপ্রদেশ (১২,৪৪৮)।

উল্লেখ্য, ১ জুন থেকে সারা দেশে পঞ্চম দফার লকডাউন বা ‘আনলক ১.০’ শুরু হয়েছে। ৩১ মে পর্যন্ত শেষ হয় চতুর্থবারের লকডাউনের মেয়াদ। লকডাউন ৫.০-র নির্দেশিকায় একাধিক ছাড়ের পাশাপাশি নাইট কার্ফুর কথা বলা হয়েছে। সাধারণ মানুষ যাতে রাস্তায় না বেরোন তার জন্য রাত ৯টা থেকে সকাল ৫টা পর্যন্ত কার্ফু জারি করার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এর অর্থ এই সময় কনটেইনমেন্ট জোন, গ্রীন, অরেঞ্জ বা রেড জোন, কোন জায়গাতেই এই সময় কেউ বের হতে পারবেন না। সব জায়গাতেই এই কার্ফু প্রযোজ্য হবে। তবে কন্টেইনমেন্ট জোন বাদে সব জায়গাতেই রেল পরিষেবা বাদে প্রায় সবকিছুই ধাপে ধাপে খুলে গিয়েছে এই লকডাউনে। অন্যদিকে, পশ্চিমবঙ্গে ৩১ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন চলবে।