বিহারে বাজ পড়ে মৃত ৮৩, আহত বহু, শোকবার্তা প্রধানমন্ত্রীর

5
kolkata news

 

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ব্যাপক প্রাকৃতিক দুর্যোগ চরম শোক বয়ে আনল বিহারের জন্য। বৃহস্পতিবার বিহারে বাজ পড়ে মৃত্যু হল ৮৩ জনের। গুরুতর আহত হয়েছেন আরও বহু মানুষ। শুধু বিহার নয়, প্রবল ঝড়-বৃষ্টির জেরে বাজ পড়ে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে উত্তরপ্রদেশও। বজ্রপাতের জেরে একদিনে এতগুলি প্রাণহানির ঘটনা বিরল। ঘটনার জেরে শোকপ্রকাশ করেছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

মৌসম বিভাগের তরফে বিহার ও উত্তরপ্রদেশের মতো রাজ্যগুলিতে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস আগেই দেওয়া হয়েছিল। তবে সেই ঝড়বৃষ্টি যে এত বিশাল ক্ষতি করতে পারে, তা বোধহয় আন্দাজ করতে পারেননি কেউই। সরকারি তথ্য বলছে বিহারের ২৩টি জেলায় এদিন প্রবল বজ্রপাতের জেরে ৮৩ জনের মৃত্যুর ঘটনা সামনে এসেছে। যার মধ্যে সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে বিহারের গোপালগঞ্জে। মধুবনি ও নওয়াদা জেলায় মৃত্যু হয়েছে ৮ জন করে ১৬ জনের। এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমেছে গোটা বিহারে। পাশাপাশি টুইট করে এই ঘটনায় শোকবার্তা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধি।

kolkata news

শোকবার্তায় এদিন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী লেখেন, ‘বিহার ও উত্তরপ্রদেশের একাধিক জেলায় ভারী বৃষ্টি ও বাজ পড়ে বহু মানুষের মৃত্যুর মত দুঃখজনক খবর জানলাম। রাজ্য সরকার তৎপরতার সঙ্গে পরিস্থিতি সামাল দিচ্ছি। এই দুর্ঘটনায় যারা প্রাণ হারিয়েছেন, তাদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা।’ পাশাপাশি টুইট করে এদিন রাহুল গান্ধি লেখেন, ‘বজ্রপাতের জেরে বিহারের ৮৩ জনের মৃত্যুর খবর শুনে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছি। ঈশ্বর ওদের পরিবারকে এই দুঃখ সহ্য করার মতো শক্তি দিন। কংগ্রেস কর্মীদের কাছে আমার অনুরোধ, স্বজন হারানো পরিবারগুলিকে যেন তারা সর্বশক্তি দিয়ে সাহায্য করে।’

এরই মাঝে বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় মৌসম বিভাগের তরফে বিহার ও উত্তরপ্রদেশে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সর্তকতা জারি করা হয়েছে। আগামী ৭২ ঘণ্টা অতিভারী বৃষ্টিপাত চলবে বিহারে। তবে শুধু বিহার নয়, এদিন উত্তরপ্রদেশে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে বাজ পড়ে। যার মধ্যে ৭জন দেওরিয়া জেলার বাসিন্দা। বাকি দু’জনের মৃত্যু হয়েছে বারাবাকি জেলায়। আগুনে ঝলসে গিয়েছেন বহু মানুষ।