কেউ ছিল না বাড়িতে, সেই সুযোগে কুকীর্তি কিশোরের! পলাতক অভিযুক্ত

64
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, আলিপুরদুয়ার: একজন নয়, পর পর দুই শিশুকন্যা। তাও আবার একই দিনে। কিশোরের হাতে ধর্ষণের শিকার হল ৫ ও ৭ বছর বয়সি দুই শিশুকন্যা। এহেন সাহস আর বিকৃত মানসিকতার ঘটনার জেরে তীব্র ক্ষোভ ছড়ালো উত্তরবঙ্গের আলিপুরদুয়ার জেলার কালচিনি থানা এলাকায়। জানা গিয়েছে, গত রবিবার জেলার কালচিনি থানার রাজাভাতখাওয়া চা বাগানের শালবাড়ি এলাকার ওই কিশোরের ভাড়িতে কেউ ছিল না। সেই সুযোগে ১৬ বছর বয়সী ওই কিশোর তার প্রতিবেশী এক পরিবারের ৫ বছরের শিশুকন্যাকে সকালের দিকে নিজের ঘরে ডেকে পাঠায়। মেয়েটি সেই ডাকে সাড়া দিয়ে তার বাড়িতে এলে ওই কিশোর তার মুখ কাপড় দিয়ে চাপা দিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। সেই সঙ্গে তাকে বলে দেয় সে যেন কাউকে এই বিষয়ে কিছু না জানায়।

সেই দিনই আবার দুপুর বেলায় ওই কিশোরই নিজের অপর এক প্রতিবেশির ৭ বছরের মেয়েকে ওই একই ভাবে ডেকে পাঠায়। মেয়েটি এলে ওই কিশোর আবার ওই একই পদ্ধতিতে তাকে ধর্ষণ করে। তাকেও সে বলে দেয় এই বিষয়ে কাউকে কিছু না জানাতে। কিন্তু ওই মেয়েটি তার বাড়িতে ফিরে সব কিছু জানিয়ে দেয় তার মাকে। ওই মহিলাই তখন পাড়ার ছেলেদের ডেকে ওই কিশোরের কুকীর্তি জানান সবাইকে। পাড়ার লোক তখন দল বেঁধে ওই কিশোরের বাড়িতে এলে সে ভয়ে এলাকা ছেড়ে গা ঢাকা দেয়।

মঙ্গলবার ওই দুই শিশুকন্যার অভিভাবকেরা ওই কিশোরের নামে কালচিনি থানায় তাদের মেয়েকে ধর্ষণ করার অভিযোগ জানায়। পুলিশ সেই অভিযোগের ভিত্তিতে মেয়ে দুটিকে মেডিকেল চেকআপের জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছে। অভিযুক্ত নাবালক কিশোরের খোঁজ চলছে। অভিযোগের ভিত্তিতে গোটা ঘটনার তদন্ত নেমেছে কালচিনি থানার পুলিশ।