‘১০ টাকার গাড়ি পাওয়া যায় না’ ,গাড়ির শোরুমের কর্মীর হাতের চূড়ান্ত হেনস্থা কৃষকের, ক্ষোভ উগরে দিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়

31
গাড়ির শোরুমের কর্মীর হাতের চূড়ান্ত হেনস্থা কৃষকের

মহানগর ডেস্ক : ব্যাঙ্গালোরের একটি গাড়ির শোরুমের কর্মীর হাতে হেনস্তা হতে হল এক চাষীকে। তাঁর যোগ্যতা এবং স্বভাব নিয়েও চূড়ান্ত হেনস্থার মুখোমুখি হতে হয় সেই চাষীকে। সোশ্যাল মিডিয়াতে সেই খবর আসতেই হুহু করে আগুনের মত ছড়িয়ে পড়েছে। নেটিজেনরা একহাত নিয়েছেন সেই গাড়ির কর্মীকে।

গত শনিবার বিকেলে কেম্পা গদা নামক এক চাষী একটি ট্রাক্টর কিনতে গিয়েছিলেন ব্যাঙ্গালোরের তুমাকুরু জেলার মাহিন্দ্রার একটি শোরুমে। গাড়ী বিক্রেতা সেই চাষি এবং তাঁর বন্ধু-বান্ধবকে দেখে হাসাহাসি করে। তাঁকে জানানো হয় ১০ টাকার কোনও গাড়ি এখানে পাওয়া যায় না। এবং সেখান এই ধরনের কেউ কিনতে আসে না। তখন চাষির এক কাকা সেই কর্মীকে জানায় যদি তারা ১০ লাখ টাকা দেয় তাহলে কি ৩০ মিনিটের মধ্যে তাঁরা গাড়ি পাবে? কিছুটা তাচ্ছিল্যের সুরে জবাব দেয় সেই কর্মী। যদি তাঁরা এই মুহূর্তে অত টাকা দিতে পারে তাহলে ৩০ মিনিট কেন তারও আগে পৌঁছে যাবে তাঁদের গাড়ি।

স্বভাবতই অসম্মান হওয়ার পর গোটা ঘটনাটি তুলে ধরেছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে। এবং সেইসঙ্গে কেম্পা জানিয়েছে ঘটনাটির শেষ দেখে ছাড়বে সে। প্রসঙ্গত সেই চাষী নিজে দশম শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করেছে। একইসঙ্গে তিনি তুলে ধরেছেন এই ঘটনা যে কারও সঙ্গেই ঘটতে পারে। যে চূড়ান্ত অপমান অবজ্ঞা তাদের করা হয়েছে তার শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ওই কৃষক।