‘বাঙালির মাথা হেঁট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী’, তাই বিধানসভা চত্বরে শুভেন্দুর নেতৃত্বে জাতীয় সঙ্গীত গাইল বিজেপি

12

মহানগর ডেস্ক: ২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে প্রখর জাতীয়তাবাদ হয়ে উঠেছে ভারতীয় জনতা পার্টির তুরুপের তাস। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কোণঠাসা করতে ফের সেই চিরাচরিত অস্ত্রেই শান দিল পদ্ম শিবির।

উল্লেখ্য, গতকাল বাণিজ্য নগরী মুম্বাইতে নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করছিলেন মমতা। বৈঠক চলাকালীন জাতীয় সঙ্গীত উঠে আসে মমতার মুখে। ‘জন-গণ-মন’ আওড়ানোর সময় তিনি বসে ছিলেন বলে অভিযোগ করে বিজেপি। তৃণমূল সুপ্রিমোর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন এক স্থানীয় বিজেপি নেতা।

এবার সেই বিতর্কের ঢেউ সুদূর আরব সাগরের তীর থেকে আছড়ে পড়ল বঙ্গোপসাগরে। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে এক দল বিজেপি বিধায়ক বিধানসভা চত্বরে ‘দাঁড়িয়ে’ জাতীয় সঙ্গীত গাইলেন। নাটাবাড়ির বিধায়ক মিহির গোস্বামী‌, ইংরেজবাজারের বিধায়ক শ্রীরুপা মিত্র চৌধুরী সহ একাধিক জনপ্রতিনিধি এদিন উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করেছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু। পাশাপাশি এক বার্তায় মমতাকে বিঁধতেও ছাড়েননি তিনি। শুভেন্দু এদিন লেখেন, “গতকাল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জাতীয় সঙ্গীতের অবমাননা করেছেন। বাঙালিদের মাথা হেঁট হয়ে গেছে। তাই ভুল সংশোধন করার উদ্দেশ্যে বিজেপির পরিষদীয় দলের পক্ষ থেকে আমরা কয়েকজন সদস্য বিধানসভা চত্বরে জন-গণ-মন গাইলাম।”