Abhishek Banerjee: অভিষেকের বিচার ব্যবস্থা নিয়ে মন্তব্যের জেরে আদালতে দায়ের হল স্বতঃপ্রণোদিত মামলা

411
Abhishek Banerjee: অভিষেকের বিচার ব্যবস্থা নিয়ে মন্তব্যের জেরে আদালতে দায়ের হল স্বতঃপ্রণোদিত মামলা

মহানগর ডেস্ক: শনিবার হলদিয়ায় শ্রমিক সভা করেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। সেখান থেকে তিনি বিচার ব্যবস্থার এক দুজনকে ‘ তল্পিবাহক ‘ হিসেবে মন্তব্য করেন। তিনি জানিয়েছিলেন, বিচারব্যবস্থায় ১-২ জন রয়েছেন যারা যোগসাজশে কাজ করছেন। তল্পিবাহক হিসেবে কাজ করছেন। এবার সেই মন্তব্যের ভিত্তিতেই কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হল স্বতঃপ্রণোদিত মামলা। সোমবার দুপুর ২টোতেই হবে শুনানি। বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য ও বিচারপতি অজয়কুমার মুখোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ এই মামলা শুনবে। মামলকারীর দাবি, বিচারপতিকে নিয়ে মন্তব্য করে অপরাধ করেছেন সাংসদ অভিষেক।

রবিবার এই বিষয় নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। শিলিগুড়ি সফরে গিয়ে তিনি জানিয়েছেন, ‘প্রকাশ্য জনসভা থেকে এক জন সাংসদ এক জন বিচারপতিকে আক্রমণ করেছেন। এসএসসি দুর্নীতি মামলায় যে বিচারপতি সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন, তাঁকে আক্রমণ করা হয়েছে। সাংসদের এ হেন মন্তব্য নিন্দনীয়। আমি বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখছি’।

আরও পড়ুন: ৮ বছরপূর্তি কেন্দ্রের মোদি সরকারের, প্রশংসায় পঞ্চমুখ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি

রাজ্যপালের মন্তব্যের পর পাল্টা টুইট করেছিলেন সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, ‘আমি সব সময় ক্ষমতার কাছে সত্য কথা বলতে বিশ্বাসী। শনিবার আমি বলেছিলাম যে কী ভাবে কিছু ব্যক্তিকে রক্ষা করার জন্য কলকাতা হাইকোর্টের এক শতাংশ কেন্দ্রের সঙ্গে যৌথ ভাবে কাজ করছেন’। একইসঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় আরও লিখেছেন, ‘রাজ্যবাসীরা দেখেছে, কে আসলে নিজের ক্ষমতা অতিক্রম করেছে’।

প্রসঙ্গত, শনিবার হলদিয়া শ্রমিক সভায় যোগদান করে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, ‘আমার বলতে লজ্জা লাগে বিচার ব্যবস্থায় এক দুজন এমন আছেন যারা নিজেদের মধ্যে যোগসাজশে কাজ করছেন। তারা আসলে তল্পিবাহক হিসেবে কাজ করছেন। কিছু হলেই সিবিআই লাগিয়ে দিচ্ছে। খুনের মামলা স্থগিতাদেশ দিয়েছেন। ভাবতে পারেন, আপনি অভিযুক্তকে নিরাপত্তা দিতে পারেন, কিন্তু মামলা স্থগিতের আদেশ দিতে পারেন না’।

আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীর সফরে পরিবর্তন, জঙ্গলমহলের পর সিঙ্গুর