মিথিলার ধর্ম নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন ইসলামপন্থীরা! বিজয়ার বার্তা দিতে গিয়ে বিপাকে অভিনেত্রী

36

মহানগর ডেস্ক: বাংলাদেশ সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর চলছে দুর্নীতি। হিন্দুদের শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজোকে নিয়ে ইসলামপন্থীরা সাম্প্রদায়িকতার বড় বিভেদ তৈরি করেছে। যে ঘটনার জেরে প্রাণহানি হয়েছে বহু মানুষের। কারণ আঘাত হানা হচ্ছে হিন্দুদের দেব-দেবী মন্দিরগুলিতে। এমন পরিস্থিতিতে বিজয় দশমীর দিন সকলকে ‘শুভ বিজয়া’র বার্তা দিতে গিয়ে বিতর্কের মুখে পড়তে হয় বাংলাদেশী অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা’কে।

আগামী ১৫ অক্টোবর বিজয় দশমী উপলক্ষে মিথিলা ঐতিহ্যবাহী বাঙালি পোশাকে নিজের একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন। ছবির পাশাপাশি মিথিলা শুভ বিজয়ার শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেছিলেন, যে আগামী বছরও দুর্দান্ত অনুষ্ঠান হবে।

কিন্তু এটি টুইটটি উগ্র ইসলামপন্থীরা ভালভাবে নেননি। তাঁরা হিন্দু উৎসবে অভিনন্দন জানানোর জন্য অভিনেত্রীকে গালিগালাজ এবং অপমানজনক মন্তব্য করেছেন। অনেক ইসলামপন্থীরা এই সত্যটি বুঝতে পারেননি যে, অভিনেত্রী শুধুমাত্র হিন্দু উৎসবে হিন্দুদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। উল্টে তাঁরা এই অভিনেত্রীর চরিত্রে আঘাত এনেছে। ইসলামিক আধিপত্যবাদে বিশ্বাসীরা, অন্যান্য সম্প্রদায়ের উৎসবে শুভেচ্ছা জানানোকে ‘হারাম’ বলে মনে করেন। সেই ধারণা অনুযায়ী, বেশিরভাগ মৌলবাদীরা তাঁকে ‘পতিতা’ বলে অপমান করেছেন।

একজন টুইটার ব্যবহারকারী অভিনেতার টুইটের জবাবে তাঁকে ‘বাংলাদেশের জন্য অপমানজনক’ বলে অভিহিত করে । সঙ্গে তাঁকে ভারতে থাকার পরামর্শ দিয়ে লেখেন ‘যদি সে হিন্দু ধর্মকে খুব ভালোবাসে তাহলে ভারতে চলে যেতে পারেন’। কেউ কেউ আবার তাঁর ধর্ম নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তাঁকে জিজ্ঞাসা করেছেন যে সে আসলেই মুসলিম কিনা। তারপরে আরও কিছু লোক ছিলেন যারা অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে হিন্দু উৎসবে শুভেচ্ছা জানানোর জন্য গালিগালাজও করেছিলেন।