স্কুলে নিয়ে যাওয়া থেকে বিয়ের মন্ডপে, আলিয়াকে প্রথম এই কথাটাই বললেন গাড়ির চালক

25

মহানগর ডেস্ক : আলিয়া-রণবীরের বিয়ে এখনও টিনসেল টাউনের ‘হটেস্ট নিউজ’। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে সাত পাকে বাঁধা পড়েছেন দুই অভিনেতা অভিনেত্রী। বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন দুই পরিবারের ঘনিষ্ঠ লোকজন এবং কাছের বন্ধুরা। ঠিক সেই রকমই কাছের লোকের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আলিয়ার গাড়ির চালক এবং বডিগার্ড সুনীল তালেকার। তবে অভিনেত্রীকে বিয়ের সাজে দেখে প্রথমেই যে কথা বললেন তিনি তাতে আবেগে ভেসেছে সোশ্যাল মিডিয়া।

 

আলিয়ার যখন মাত্র পাঁচ বছর বয়স ঠিক তখন থেকেই তাঁর যাবতীয় দায়িত্বে রয়েছেন সুনীল। ছোট্ট আলিয়াকে স্কুলে নিয়ে যাওয়া,স্কুল থেকে আনা যাবতীয় রক্ষার দায়িত্ব ছিল সুনীলের হাতেই। এখনো আলিয়ার যাবতীয় দায়িত্ব সামলাচ্ছেন সুনীল ।তাই আলিয়া তাঁর কাছে এখনো ছোট বাচ্চা মেয়ে। তবে আজ সেই ছোট্ট মেয়েটির বিয়ে। যা দেখে স্বভাবতই আবেগে ভেসেছেন সুনীল। শুধু তাই নয়, ছোট্ট সেই আলিয়াকে কনের সাজে দেখে খুশিতে কেঁদেও ফেলেছেন তিনি।

 

তবে আলিয়াও ভীষণ ভালোবাসেন সুনীলকে। নব দম্পতি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন সেই ছবিও। এক সংবাদমাধ্যম সংস্থাকে এদিন সুনীল জানিয়েছেন,’ পাঁচ বছর বয়স থেকে দেখছি আলিয়াকে। ওকে স্কুলে নিয়ে যেতাম নিয়ে আসতাম। ও আমার মেয়ের মত। আজ ওকে কনের সাজে দেখে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছি। ওকে বলি তোমাকে অসাধারণ সুন্দর লাগছে। ওহ হাঁসে এবং আমাকে ধন্যবাদ জানায়’। এই খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় আসার পর থেকেই আবেগে ভেসেছেন অনুরাগীরাও। এমনকি নেটিজেনদের মুখেও শোনা গিয়েছে বাহবা।