রামপুরহাট অগ্নিকাণ্ডে মৃত্যু হল আরও এক অগ্নিদগ্ধ মহিলার, টানা ৪০ দিন পাঞ্জা লড়েও মিলল না রেহাই

108

মহানগর ডেস্ক: রামপুরহাট অগ্নিকাণ্ডে মৃত্যু হল আরও এক মহিলার। দীর্ঘ ৪০ দিন ধরে হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়েও মিলল না রেহাই। শনিবার ভোররাতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন বছর পঞ্চাশের আতাহার বিবি।

রামপুরহাট অগ্নিকাণ্ডে আগে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছিল। আজ এই নিয়ে প্রাণ হারালেন ১০ জন। মৃত এই আতাহার বিবির শরীরের ২৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। তিনি ঘটনার পর থেকে টানা ৪০ দিন রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। হাসপাতাল সূত্রে জানা যাচ্ছে, গত শুক্রবার থেকেই তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে। এরপর তাঁকে ক্রিটিক্যাল ওয়ার্ডে অন্তরিত করা হয়েছিল সেখানে শনিবার ভোররাতে ৩ টে ২০ মিনিট নাগাদ মৃত্যু হয় মহিলার।

প্রসঙ্গত, রামপুরহাটের বগটুই কাণ্ডে রাতের অন্ধকারে বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। সেখানেই অগ্নিদগ্ধ হয়ে বেশ কিছু জন মারা গিয়েছিলেন এবং আরও কয়েক জন প্রাণে বেঁচে ছিলেন। কিন্তু তাঁদের শারীরিক অবস্থা ভাল ছিল না। ঘটনাকে ঘিরে জল ঘোলা হয় অনেক। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পর্যন্ত ছুটে গিয়েছিলেন ঘটনাস্থলে। সেখানে মৃতদের পরিবার পিছু আর্থিক সাহায্য এবং চাকরির কথাও ঘোষণা করেন তিনি।

এই ঘটনার জেরে অভিযোগ ছিল স্থানীয় তৃণমূল নেতা আনারুল হোসেনের বিরুদ্ধে। জানা যায়, আনারুলের কাছে এই অগ্নিকাণ্ডের খবর থাকার পরেও সে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। বর্তমানে এই তৃণমূল নেতা রয়েছেন পুলিশি হেফাজতে।