Droupadi Murmu : ‘লোক দেখানো রাষ্ট্রপতি’ হবেন দ্রৌপদী, কটাক্ষ কংগ্রেসের

62

মহানগর ডেস্ক : সামনেই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন (President Election)।এই নির্বাচনে এনডিএ তাঁদের রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হিসাবে বেছে নিয়েছে দ্রৌপদী মুর্মুকে ( Droupadi Murmu)। বিজেপির এই সিদ্ধান্তকে তীব্র কটাক্ষ করেছে পদুচেরি কংগ্রেস(Congress)। মঙ্গলবার রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী ঘোষণা করেছে বিজেপি (BJP)। আর তারপরের দিন অর্থাৎ বুধবার সকালে কংগ্রেসের (Congress) পক্ষ থেকে টুইট করা হয়। যদিও পরবর্তীতে সেই টুইট ডিলিট করে কংগ্রেস।

আরও পড়ুন : ফের এনসিবির তলব রিয়া-সৌভিককে! সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যু মামলায় উঠে আসতে পারে নয়া তথ্য

পদুচেরি কংগ্রেসের তরফে বুধবার সকালে টুইট করে লেখা হয়,”বিজেপি রাষ্ট্রপতি হিসাবে একজন ডামি চায় এবং একই সাথে তারা সিডিউল কাস্ট ও সিডিউল ট্রাইবকে প্রতারণা করতে চায়।” পরবর্তীতে আবার মুছে ফেলা হয় এই টুইট। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে বিজেপি।

কংগ্রেসের পাল্টা বৃহস্পতিবার বিজেপি একটি টুইট করে। টুইট করে বিজেপির তরফে লেখা হয়,”কংগ্রেস আদিবাসী সম্প্রদায় এবং মহিলাদের অবমাননা শুরু করেছে৷ কংগ্রেসের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল দ্রৌপদী মুর্মুকে “ডামি” হিসাবে চিহ্নিত করেছে৷ ওড়িশা থেকে ঝাড়খণ্ডের গভর্নর হিসাবে কাজ করার জন্য প্রথম মহিলা আদিবাসী নেতা, ২ বারের বিধায়ক তিনি। এভাবে তাঁকে কেন অপমান করা হবে। এর জবাব কংগ্রেসকে দিতে হবে।”

প্রসঙ্গত মুর্মুর মনোনয়ন ক্ষমতাসীন সরকারের একটি চমকপ্রদ পদক্ষেপ বলেই মনে করা হচ্ছে। তার মনোনয়ন সম্পর্কে কারোরই ধারণা ছিল না, আসলে, তার নাম ২০১৭ সালেও শীর্ষ সাংবিধানিক পদের জন্য বিজেপির সম্ভাব্য পছন্দের জন্য ঘুরে বেড়াচ্ছিল। পাঁচ বছর আগে দলিত রাম নাথ কোবিন্দকে শীর্ষ পদে উন্নীত করার পরে বিজেপি একটি গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক বার্তা দিয়েছিল। এবারও তেমন কিছু ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। এমনটাই মত রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।