Astrology : পুজো বা কোনও শুভকাজের আগেই হাঁচি হয়? জানুন এর লক্ষন কী এবং প্রতিকারই বা কী!

42
হাঁচি কখনই আমাদের নিয়ন্ত্রণে থাকে না

মহানগর ডেস্ক : বহু বাড়িতে সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে সেরে নেওয়া হয় প্রথম কাজ পুজো করা। ঘুম থেকে উঠেই পূজা করার নিয়ম যে বাড়িতে রয়েছে সে বাড়িতে অনেক শুভ প্রভাব লক্ষ্য করা যায়। পূজা অর্থ মনের প্রশান্তি। ভগবানকে ডেকে দিন শুরু করার অর্থ হল কোনও কাজে বাধা না আসা।

পুজো করার সময় আমাদের মন শান্ত রাখতে হয়। কারণ আমরা আমাদের মনের সমস্ত সুখ দুঃখের কথা ঈশ্বরের কাছে নিবেদন করি। আর এতেই সফল হয়। ঈশ্বরকে সন্তুষ্টি প্রদান করাই হল পূজোর লক্ষ্য। তবে অনেকেই আছেন যাঁদের পুজো করতে করতে হঠাৎ চোখ থেকে জল পড়া ,শরীর ভারী হয়ে যাওয়া কিম্বা হাঁচি দেওয়া এইসব হয়। আপাতদৃষ্টিতে এগুলি স্বাভাবিক মনে হলেও এই জিনিস দীর্ঘদিন হতে থাকলে তা কিছু ইঙ্গিত দিতে চাইছে।

পুজো করতে বসে বা কোনও শুভ কাজে আগে হাঁচি হলে কী হয় ?

পুজো করতে বসে বা কোনও শুভ কাজের আগে যদি হাঁচি হয় তাহলে বুঝতে হবে পুজোর সময় মনের ইচ্ছা প্রার্থনা যা ঈশ্বরের কাছে নিবেদন করা হয়েছে তার বিপরীত ফল হবে।অর্থাৎ যে জিনিসটা আমরা ঈশ্বরের কাছে চেয়েছি তা হবে না হবে তার উল্টোটা। অর্থাৎ মনের ইচ্ছা পূরণ হবে না।

প্রতিকার

এখন মনে হতে পারে এর থেকে বেরোনোর উপায় কী হতে পারে? কারণ হাঁচি কখনই আমাদের নিয়ন্ত্রণে থাকে না। তবে সমস্যা যখন আছে সমস্যার প্রতিকারও আছে। পুজো করতে বসে যদি হাঁচি হয় এবং তা যদি বারবার হয় তাহলে দিনের যেকোনও সময় কর্পূরের সঙ্গে তিনটে লবঙ্গ দিয়ে জালুন এবং সারা বাড়িতে সেই আগুন ঘোরান।

Astrology