South China Sea : ভারতীয় সেনাদের প্রতি চিনের আচরণ নিয়ে সরব অস্ট্রেলিয়া

56
ভারতীয় সেনাদের প্রতি চিনের ভীতিজাগানো আচরণের নিন্দা অস্ট্রেলিয়ার

মহানগর ডেস্ক: দুনিয়ায় বেজিংয়ের দাদাগিরি নিয়ে সরব হল অস্ট্রেলিয়াও। দক্ষিণ চিন সাগরে (South China Sea) ভারতীয় সেনাদের উপর তাদের আচরণ নিয়ে এবার তোপ দাগলেন অস্ট্রেলিয়ার উপ প্রধানমন্ত্রী এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রিচার্ড মার্লেস। বলেছেন, ঠিক যেমন প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় ( LAC) তারা ভারতীয় সেনাদের প্রতি হাবভাব দেখাচ্ছে, তেমনই ভয়ঙ্কর আচরণ করে চলেছে দক্ষিণ চিন সাগরেও।

নয়াদিল্লিতে অস্ট্রেলিয়ান হাইকমিশনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি বলেন, ‘চিন তার চারপাশের বিশ্বকে এমন রূপ দিতে চাইছে যা আমরা আগে দেখিনি। গত দশক থেকে বেজিং এই ধরণের কাজ করে চলেছে। আমরা দক্ষিণ চিন সাগর এবং LAC বরাবর ভারতীয় সৈন্যদের সঙ্গে তাদের ভয়ঙ্কর আচরণ করতে দেখেছি। সেই ঘটনার (গালোয়ান) সম্মানে ভারতের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করছি। SCS-এ কৃত্রিম দ্বীপ নির্মাণ এবং দ্বীপের পুনরুদ্ধারের কাজ চলছে’। মার্লেসের কথায়, চিন অস্ট্রেলিয়ার বৃহত্তম ব্যবসায়িক অংশীদার। আবার অন্যদিকে নিরাপত্তার দিক সবচেয়ে বড় উদ্বেগের কারণ এবং ভারতের জন্যও তাই। তাঁর বক্তব্য, আমাদের বন্ধুত্ব শুধুমাত্র অর্থ নির্ভর। এই মুহূর্তে গুরুত্বপূর্ণ যে, আমরা অর্থনৈতিক এবং প্রতিরক্ষার ক্ষেত্রে একসঙ্গে আমাদের সম্পর্ক গড়ে তুলতে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছি।

আরও পড়ুন: কিছুতেই দূর হচ্ছে না ত্বকের সমস্যা? জল পান করেই মিলবে মুক্তি

দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উপর দৃষ্টি আকর্ষণ করে অস্ট্রেলিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বলেছেন যে, ভারত এবং অস্ট্রেলিয়া উভয়েরই মূল্যবোধ রয়েছে। তারা উভয়ই গণতান্ত্রিক এবং তাদের দেশে আইনশৃঙ্খলা রয়েছে। প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ভৌগলিক দিক থেকে ভারত মহাসাগর আমাদেরকে জুড়ে রাখে। আমাদের মধ্যে নিরাপত্তা ও অর্থনৈতিক সংক্রান্ত সম্পর্ক রয়েছে। ভারতীয়-অস্ট্রেলীয়রা দ্রুত উন্নতি করছে। ভারতীয়-অস্ট্রেলিয়ান সম্প্রদায় বৃহত্তম ক্রমবর্ধমান সম্প্রদায়। অন্যদিকে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে তিনি বলেন, ইউক্রেনের যুদ্ধ খাদ্য ও জ্বালানির উপর প্রভাব ফেলেছে।

ভারতের সঙ্গে কাজ করার বিষয়ে তাঁর বক্তব্য, গত দুই দশক দশক ধরে একটি বিষয়ের উপর কাজ চলছে আমাদের। এদেশের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে গেলে, বিশ্ব বানিজ্যের নিয়ম মেনে চলতে হবে।

.