‘১৩১ নম্বর ওয়ার্ডের পৌরমাতা তিনি ঠিকই, কিন্তু এবার বাড়ি ছাড়ুন’, রত্নাকে বার্তা বৈশাখীর

47
Ratna vs Baishakhi
রত্না চট্টোপাধ্যায়কে পর্ণশ্রীর বাড়ি ছাড়ার হুমকি দিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়।

মহানগর ডেস্ক: ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছেন বিধায়ক তথা কাউন্সিলর রত্না চট্টোপাধ্যায়। ২০১৫ সালে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ভোটকেও ছাপিয়ে গিয়েছেন তিনি। বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়ের পরই রত্না চট্টোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে বার্তা দিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, উনি পৌর মাতা হয়েছেন। সে ঠিক আছে। কিন্তু আমাদের বাড়িটা ছাড়ুন। বর্তমানে রত্না চট্টোপাধ্যায় পর্ণশ্রীর ১৩৯ ডি/৪ মহারানি ইন্দিরা দেবী রোডের বাড়িতে তার সন্তানদের নিয়ে রয়েছেন।

সম্প্রতি সেই বাড়িটি ছাড়ার উদ্দেশ্যেই নোটিস পাঠানো হয় রত্না চট্টোপাধ্যায়কে এই নোটিশ পাঠিয়ে ছিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। রন্তা চট্টোপাধ্যায় তখন জানিয়েছিলেন, ভোট মিটে গেলে তিনি বাড়ি ছেড়ে দেবেন। সেই জন্যই আবারও একই বার্তা দিলেন বৈশাখী। গত ২৬ সেপ্টেম্বর জানা যায় বৈশাখীকে নিজের পৈত্রিক বাড়িটি বিক্রি করে দিয়েছিলেন শোভন। বৈশাখী জানিয়েছিলেন, শোভনের বাড়ির সত্ব হাতে পেয়ে গিয়েছেন তিনি। তাই বাড়িটির বর্তমান মালিক তিনি। বিভিন্ন মামলায় আইনি খরচ চালাতে সমস্যা হচ্ছিল তাই শোভন তাঁকে এক কোটি টাকা দিয়ে সেই বাড়িটি বিক্রি করে দিয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ৫ নভেম্বর বেহালার বাড়ি ছেড়ে গোলপার্কের বাড়িতে চলে আসেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। তারপর থেকে আর পর্ণশ্রীর বাড়িতে যান নি তিনি। কিন্তু এখন শোভনবাবুর সঙ্গে সেই বাড়িতে ফিরে যেতে চান বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার রত্না চট্টোপাধ্যায়েকে পর্ণশ্রীর বাড়ি ছাড়তে বলে বৈশাখী জানান, আমি চাই বেহালার ছেলে শোভন চট্টোপাধ্যায় স্বমহিমায় নিজের বাড়িতে ফিরে যাক। বাড়ি না ছাড়লে, এর পর মামলা করতে বাধ্য হব। এখানেই থেমে থাকেননি তিনি। মহেশতলার গোডাউন সম্পর্কে এদিন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, শোভন চট্টোপাধ্যায়ের মহেশতলার যে গোডাউন রয়েছে সেগুলো আমি উদ্ধার করব। আমি এখন শোভনের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির অধিকারী। আমি সেগুলি উদ্ধার করবই।