La Liga: তিন গোলে এগিয়ে থেকেও অবিশ্বাস্য ড্র বার্সার

10
বার্সার কফিনে শেষ পেরেক পুঁতে সেল্টা ফুটবলারদের উচ্ছ্বাস।

মহানগর ডেস্ক: প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগেই সেল্টা ভিগোর জালে তিন গোল দিয়ে ফেলেছিল বার্সেলোনা। নিশ্চিত জয় ধরেই রেখেছিলেন বার্সা সমর্থকরা। তবে দ্বিতীয়ার্ধে অবিশ্বাস্যভাবে তিন গোল হজমও করে ফেলল কাতালান ক্লাবটি। ফলে লিগে জয় খরা আর কাটানো হল না বার্সার। ম্যাচ শেষ হল ৩-৩ গোলের সমতায়।

সোমবার বার্সেলোনার নতুন কোচ হিসেবে দায়িত্ব বুঝে নেবেন ক্লাবের কিংবদন্তি ফুটবলার জাভি। তাঁর ফেরার আগে সেল্টার মাঠ বালাইদোসে বার্সা বড় জয়ে নিজেদের প্রস্তুত করে রাখছে বলেই মনে হচ্ছিল। অন্তত প্রথমার্ধের খেলা দেখে! তবে দ্বিতীয়ার্ধে পাল্টে যায় দৃশ্যপট। বার্সা শেষ গোলটি হজম করে ম্যাচের একেবারে শেষ বাঁশি বাজার বাজার মুহূর্তে। আর অবিশ্বাস্য ভাবে পয়েন্ট খুইয়ে মাঠ ছাড়ে তারা।

প্রথমার্ধে দুর্দান্ত আধিপত্য দেখিয়েছিল বার্সা। ম্যাচের ৫ মিনিটেই বাঁ প্রান্ত থেকে একক প্রচেষ্টায় আনসু ফাতির দুর্দান্ত গোল। ১৭ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে দুই বছর পর ব্লাউগ্রানা জার্সি গায়ে গোল করলেন সার্জিও বুসকুয়েটসও। অ্যাওয়ে ম্যাচে তারা তৃতীয় গোলটি আদায় করে নেয় ৩৩ মিনিটে। আবারও বাঁ প্রান্ত থেকে সাজানো আক্রমণে সফল সার্জি বারজুয়ানের দল। লেফটব্যাক জর্ডি আলবার ক্রসে মাথা ছুঁইয়ে এবার স্কোরশিটে নাম তোলেন মেম্ফিস ডিপাই। আর তাতেই জয়ের আনন্দে মাতোয়ারা হয়ে ওঠেন সমর্থকরা।

তবে এটাই শেষ হাসি। এরপর ম্যাচের বাকিটা সময় বার্সার জন্য শুধুই হতাশার। ৪৩ মিনিটে মাংশপেশিতে টান লাগায় মাঠ ছাড়তে হয় ফাতিকে। পরে জানা যায়, ঊরুর চোটে কাবু বার্সার নয়া নম্বর টেন। ফাতির মাঠ ছাড়ার পর দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটে সেল্টার প্রথম আঘাত। ৫২ মিনিটে একটি গোল শোধ দেন ইয়াগো আসপাস। এরপর আয়োজকদের আশা দেখান নোলিতো। ৭৪ মিনিটে তাঁর হেডে করা গোলের পরেই ম্যাচ বাঁচানোর স্বপ্ন দেখতে শুরু করে সেল্টা। ইনজুরি টাইমে আসপাস নিজের দ্বিতীয় গোলটি করে সেই স্বপ্নকে সত্যি করেন।

এই নিয়ে লা লিগায় টানা দ্বিতীয় ড্র করল বার্সা। তার আগের দুই ম্যাচে অবশ্য হারের মুখ দেখেছে। এই মুহূর্তে ১২ ম্যাচে মাত্র ১৭ পয়েন্ট সংগ্রহ করে তালিকার নয় নম্বরে রয়েছে তারা। অর্থাৎ জাভি আসার পর বাকি মরসুমে তাঁর কাজটি যে বেশ কঠিন হতে চলেছে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।