Bengaluru: রাতারাতি ফেটে চৌচির প্রধানমন্ত্রীর জন্য বানানো রাস্তা

65
Bengaluru: রাতারাতি ফেটে চৌচির প্রধানমন্ত্রীর জন্য বানানো রাস্তা

মহানগর ডেস্ক: চলতি সপ্তাহের সোমবার বেঙ্গালুরু (Bengaluru) সফরে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। তাঁর এই সফরের আগেই বেঙ্গালুরু বিশ্ববিদ্যালয়ের আশে পাশের রাস্তা মেরামতের করিয়েছিল সরকার। কিন্তু সেই সড়ক একদিনের বৃষ্টিও সহ্য করতে পারল না। মঙ্গলবারের এই বৃষ্টিতে ধসে গিয়েছে রাস্তার একাংশ। ২৩ কোটির সড়ক এক রাতের মধ্যেই ভেঙে চার টুকরো হয়ে গেল।

বেঙ্গালোর মিউনিসিপ্যাল ​​কর্পোরেশন সম্প্রতি ২৩ কোটি টাকা ব্যয় করে ৬.৩ কিলোমিটার একটি রাস্তা নতুন করে নির্মাণ করেছিল। যা ধরে সরাসরি বেঙ্গালুরু বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রবেশ করা যায়। গত সোমবার এই রাস্তা দিয়েই ডক্টর ভীমরাও আম্বেদকর স্কুল অফ ইকোনমিক্সে পৌঁছেছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। কিন্তু তারপর একটা রাত পেরোতে না পেরোতেই রাস্তার বেহাল চিত্র ভেসে আসে।

আরও পড়ুন: এখনই নয় প্রবল বর্ষণ, আজও বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা

এক রাতের বৃষ্টির সহ্য করার ক্ষমতা নেই কোটি টাকার রাস্তার। পথের মাঝে বড় বড় গর্ত। পথচলতি মানুষেরা রাস্তার এই অবস্থা দেখে হতবাক। একি কাণ্ড! যার জন্য নির্মাণ করা হল এই পথ, তার যাওয়ার একরাত পরেই বসে গেল রাস্তা!

স্থানীয় অনন্ত সুব্রামানিয়াম নামক এক ব্যাক্তি বলেন, ‘নতুন রাস্তার এই অবস্থা দেখে পথ চলতি মানুষেরা অনেকবার অভিযোগ করেছে, কিন্তু কেউ সেই কথা শুনতে প্রস্তুত ছিল না। প্রশাসনের এই গাফিলতির দেখে, আর কোনও উপায় না পেয়ে পথে তৈরি গর্তের কাছে ব্যারিকেড লাগিয়ে দিয়েছি আমরা। তবে সড়কের মধ্যে এত বড় গর্ত এই প্রথম নয়। এর আগেও এপ্রিল মাসে, বেঙ্গালুরু সফরে আসার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রীর। আর তাঁর আগমনের জন্য রাস্তা তৈরি করা হয়েছিল।কিন্তু মোদির সেই সফর শেষ পর্যন্ত বাতিল হয়ে যায়। আর তার কয়েকদিনের মধ্যেই রাস্তার অবস্থা আবার আগের মতো হয়ে গিয়েছিল এবং সেখানে গর্তের তৈরি হয়েছিল।’

তবে দুদিন ছাড়া ছাড়া কেন ওই রাস্তার এমন বেহাল চিত্র ধরা পড়ে? এর উত্তরের জন্য বেঙ্গালুরু মিউনিসিপাল কর্পোরেশনের এক আধিকারিকের সঙ্গে কথা বলা হলে, তিনি জানান, ‘ওই রাস্তার নিচ থেকে দু’ধরনের পাইপলাইন গেছে। আর ওই পাইপলাইন ঠিক করার জন্যই মাঝে মাঝে খুঁড়তে হয় ওই রাস্তা। কিন্তু যেমন খোঁড়া হয় তেমনই মেরামতিও করা হয়। মেরামতি করেও কোন লাভ হয় না।’