‘বাইবেল এবং কোরানের সঙ্গে গীতাকে গুলিয়ে ফেলবেন না , এটি সব কিছুর ঊর্ধ্বে’, বিতর্কিত মন্তব্য কর্ণাটকের শিক্ষামন্ত্রীর

119

মহানগর ডেস্ক: হিজাব বিতর্কের পর কর্ণাটকে এবার শুরু হয়ে গিয়েছে বাইবেল বিতর্ক। বুধবার এই রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী বি সি নাগেশ গীতা, বাইবেল, কোরান নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন। তিনি এদিন বলেন,’ বাইবেল ও কোরান ধর্মীয় গ্রন্থ। ভগবত গীতাকে এর সঙ্গে গুলিয়ে ফেলবেন না। ভগবত গীতা ধর্মীয় গ্রন্থ নয়। এটি কেবল ধর্মীয় আচারের কথা বলে না। প্রার্থনা কীভাবে করতে হয়, সে সব বলা নেই এখানে। এই বই এসবের অনেক ঊর্ধ্বে।’

এরপর তিনি আরও বলেন,’ আমরা পড়ুয়াদের নৈতিক বিজ্ঞানের পাঠক্রমে এমন কিছু অন্তর্ভুক্ত করতে চাইছি, যা তাদের নৈতিক বোধকে উন্নত করবে।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত ২৫ এপ্রিল হিন্দু জনজাগৃতি সমিতি বেঙ্গালুরুর ক্লারেন্স হাইস্কুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিল যে স্কুল কর্তৃপক্ষ বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের ওপর বলপূর্বক বাইবেল চাপিয়ে দিচ্ছে এবং স্কুলে বাইবেল নিয়ে যাওয়াও বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

আর এই অভিযোগ ওঠার পরই স্কুল কর্তৃপক্ষ একটি বিবৃতি দেয় এবং জানায়,’ আমাদের স্কুলের একটি নীতির বিরুদ্ধে কেউ কেউ আপত্তি করেছে। তারা আইন মেনে চলবেন। দেশের আইন ভঙ্গ করবেন না।’ তারপর মঙ্গলবার এই স্কুলকে শোকজ নোটিশ পাঠানো হয়েছিল রাজ্যের শিক্ষা দপ্তরের পক্ষ থেকে। আরেকদিকে ন্যাশনাল কমিশন ফর প্রটেকশন অফ চাইল্ড রাইটস এই বিষয়ের তদন্তের দাবি জানিয়েছে।