হিংসা ছড়ানোর পরিকল্পনা করছে বিজেপি, মুর্শিদাবাদে অভিযোগ মমতার

7
kolkata news

নিজস্ব প্রতিনিধি : বিজেপি হিংসা ছড়ানোর প্ল্যান করছে। আজ, মঙ্গলবার মুর্শিদাবাদের সভায় এমনই গুরুতর অভিযোগ করলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপির পরিকল্পনা ভেস্তে দেওয়ার আবেদনও জানান মমতা।

এদিন কংগ্রেসের গড় বলে খ্যাত মুর্শিদাবাদে একাধিক সভা করেন তৃণমূল সুপ্রিমো। প্রতিটি সভায় তিনি বিজেপির বিপদ নিয়ে সোচ্চার হন। সংখ্যালঘু মুর্শিদাবাদে হিন্দু, মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ পাশাপাশি বাস করেন। রাত পোহালেই রামনবমী। চলছে রমজান মাসও। এদিন সে প্রসঙ্গ তুলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, হিংসা ছড়ানোর প্ল্যান করছে বিজেপি। সেই প্ল্যান ভেস্তে দিতে হবে। হিন্দু মুসলিম সবাই এক সঙ্গে থাকব বলেও মন্তব্য করেন মমতা। সিপিএম কিংবা কংগ্রেসকে ভোট দিলে আখেরে যে বিজেপিরই লাভ হবে, এদিন তাও মনে করিয়ে দেন তৃণমূল নেত্রী। তিনি বলেন, ভোট ভাগাভাগি না করে তৃণমূলকে ভোট দিন। বিজেপির বিরুদ্ধে একমাত্র তৃণমূলই জিততে পারে বলেও দাবি ঘাসফুল শিবিরের সর্বময় কর্ত্রীর।

দীর্ঘদিন ধরে কংগ্রেসের গড় হিসেবে পরিচিত মুর্শিদাবাদ। প্রবল বাম জমানায়ও জেলায় দাপটের সঙ্গে রাজনীতি করেছেন অধুনা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী। যখন অন্যান্য জেলা আক্ষরিক অর্থেই শূন্য হাতে ফিরিয়েছে কংগ্রেসকে, তখনও সনিয়া গান্ধির দলের হাতে গিয়েছে মুর্শিদাবাদের একাধিক কেন্দ্রের রাশ। চলতি বিধানসভা নির্বাচনে জোট হয়েছে কংগ্রেস-সিপিএমে। দুই দলের এই জোটে শামিল হয়েছে ফুরফুরা শরিফের আব্বাস সিদ্দিকির দল ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টও। এই তিন দলের প্রার্থীদের ভোট দিয়ে ভোট নষ্ট না করার আবেদনও জানান মমতা।