তৃণমূলের বি-টিম বিজেপি! ক্ষোভ উগরে পদ্ম ছাড়লেন দাপুটে নেত্রী

28

নিজস্ব প্রতিনিধি: বাংলায় তৃণমূলের বি-টিম বিজেপি! এমনই অভিযোগ তুলে দল ছাড়লেন পূর্ব মেদিনীপুরের এক বিজেপি নেত্রী। তনুশ্রী রায় নামের ওই সদ্য প্রাক্তন বিজেপি নেত্রীর স্বামী নবারুণ নায়েক অবশ্য এখনও বিজেপিতেই রয়েছেন। তনুশ্রী তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন বলে গুঞ্জন ছড়িয়েছে। যদিও নিজেই জল ঢেলে দিয়েছেন সেই জল্পনায়।

একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়ে পার্টি ছাড়লেন বিজেপির মহিলা মোর্চার প্রাক্তন রাজ্য সভানেত্রী তনুশ্রী। পূর্ব মেদিনীপুর জেলা রাজনীতিতে তিনি পরিচিত নাম। তাঁর স্বামী নবারুণ বিজেপির তমলুক জেলা সভাপতি পদে ছিলেন। সম্প্রতি তাঁকে সরানো হয়েছে। দিন দুয়েক ধরে বিজেপির হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছেড়েছেন মতুয়া সম্প্রদায়ের পাঁচ বিধায়ক। সাংসদ তথা মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুরও বেরিয়ে গিয়েছেন ওই গ্রুপ থেকে। বুধবারই বিজেপির রাজ্য নেতৃত্বকে পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন তিনি। সেই চিঠি দিয়েছেন নিজের ফেসবুক পেজেও।

সংবাদ মাধ্যমকে তনুশ্রী বলেন, বেশ কিছুদিন ধরেই আমি দলের কাজকর্মে বিরক্ত বোধ করছিলাম। এর পর আজ চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললাম। আমি চিঠিতেও লিখেছি, ঠিক কোন কারণে আমার দলত্যাগের সিদ্ধান্ত। সদ্য প্রাক্তন এই বিজেপি নেত্রী বলেন, আমি দীর্ঘ দিন রাজনীতিতে রয়েছি। এ বারের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি যে আরও ভালো ফল করতে পারত, তা আমরা জানি। কিন্তু রাজ্য সংগঠনের কাজকর্ম সদর্থক নয়।

বিজেপি ‘বহিরাগত’দের নিয়ে মাতামাতি করছে বলেও অভিযোগ করেন তনুশ্রী। তিনি বলেন, বাইরে থেকে যাঁরা দলে এসেছেন, এখন তাঁদের নিয়েই বেশি মাতামাতি চলছে। তনুশ্রী এদিন শুভেন্দুর ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, শুভেন্দু অধিকারি জেলায় দারুণ কাজ করেছেন। পূর্ব মেদিনীপুরে বিজেপির যে ফল, তা শুভেন্দুর হাত ধরেই। তিনি বলেন, উনি মানুষের জন্য কাজ করেন।