হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়াকেই হাতিয়ার করছেন বিজেপি নেতারা!

9

নিজস্ব প্রতিনিধি: কেউ গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, কেউ আবার স্বগোষ্ঠীর কারও কমিটিতে ঠাঁই না হওয়ায় হাতিয়ার করছে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়াকে। ইদানিং বিজেপি নেতাদের এই হাতিয়ার প্রয়োগের যথেচ্ছ ব্যবহারে বিপাকে গেরুয়া শিবির। দিন কয়েক আগে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছেড়েছিলেন মতুয়া সম্প্রদায়ের কয়েকজন। এবার সেই একই পথে পা বাড়ালেন বীরভূমের কয়েকজন বিজেপি নেতাও।

ফের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়লেন দুই বিজেপি নেতা। বুধবার সন্ধ্যায় বিজেপির  হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়েন দলের বীরভূম জেলার সহ সভাপতি উত্তমকুমার রজক ও জেলা সম্পাদক অরিন্দম মুখোপাধ্যায়। এঁদের আগে জেলায় গ্রুপ ছেড়েছিলেন মল্লারপুরের জেলা সম্পাদক ও জেলা সংখ্যালঘু সেলের সভাপতিও। একের পর পর এক নেতার দল ছাড়ায় নিদারুণ অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির। কী কারণে গ্রুপ ছেড়েছেন তাঁরা? পদ্ম শিবিরের একাংশের মতে, বিধানসভা উত্তরকালে বীরভূম জেলার সহ সভাপতি এবং জেলা সম্পাদকের সঙ্গে জেলা সভাপতি ধ্রুব সাহার কোন্দল শুরু হয়। যার জেরে গ্রুপ ছেড়েছেন তাঁরা। এর আগে গ্রুপ ছেড়েছিলেন মল্লারপুরের জেলা সম্পাদক এবং জেলা সংখ্যালঘু সেলের সভাপতিও।

গত বছরের শেষের দিকে সাংগঠনিক রদবদল হয় বিজেপিতে। তাতে ঠাঁই না হওয়ায় প্রথম বিদ্রোহ করে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছেড়ে বেরিয়ে যান মতুয়া সম্প্রদায়ের পাঁচজন।তাঁদের মধ্যে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুরও ছিলেন। এর পরেই দাবিদাওয়া আদায়ে গ্রুপ ছড়াকেই হাতিয়ার করতে থাকেন একের পর এক জেলা নেতা।

গেরুয়া শিবিরের একাংশের মতে, ক্ষমতায় আসতে পারেনি বিজেপি। অদূর ভবিষ্যতে আসার সম্ভাবনাও নেই। তাই গ্রুপ ছেড়ে বেরিয়ে গিয়ে রাজ্যের শাসক দলে ভিড়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন অনেকে!