‘বিজেপির আসল বিরোধী কংগ্রেস নয়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়’, ‘জাগো বাংলা’য় রাহুলকে তোপ তৃণমূলের

64

মহানগর ডেস্ক: বিজেপিকে হারানোর ক্ষমতা রাখে কংগ্রেসই। তিনদিনের চিন্তন শিবিরের শেষে এমনটাই দাবি করেছেন কংগ্রেস নেতা। এবার তাঁর সেই বক্তব্যের পাল্টা জবাব দিল বাংলার শাসক দল। তৃণমূলের ‘জাগো বাংলা’য় প্রকাশিত একটা সম্পাদকীয়তে লেখা হয়েছে, “বিজেপির আসল বিরোধী যে কংগ্রেস, সেটা এখন মানুষ বিশ্বাস করেন না। নিজের অভিজ্ঞতা দিয়ে আমজনতা বুঝেছে এই মুহূর্তে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই বিরোধী মুখ”।

গতকাল উদয়পুরে চিন্তন শিবিরের অন্তিম লগ্নে রাহুল গান্ধীর এহেন মন্তব্যের বিরোধিতা করেছে তৃণমূল। জাগো বাংলার ‘চিন্তনের চিন্তা’ সম্পাদকীয়তে লেখা হয়েছে, ‘যাঁদের নিজের ঘর বিধ্বস্ত, তাঁরা অন্যের ঘরে উঁকি দিয়ে দেখার চেষ্টা করছে। উদ্দেশ্য একটাই, নিজের দোষ ঢেকে অন্যকে অপরাধী করে তোলা’। সম্পাদকীয়তে লেখা হয়েছে, “কংগ্রেসই যে বিজেপির আসল বিরোধী সেটা মানুষ আর এখন বিশ্বাস করে না। বিজেপিও সেটাই মনে করে। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর দলকে আক্রমণের জন্য সব সময় তৈরি থাকে গেরুয়া শিবির”।

প্রসঙ্গে সেখানে প্রশ্ন করা হয়েছে, “বাংলা থেকে কেরল, গোয়া থেকে পাঞ্জাব কংগ্রেস কোথাও তৃণমূলের কাছে, কোথাও আপের কাছে, কোথাও বিজেপির কাছে হারছে। তাহলে তারা কী করে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই করবে?” বাংলার শাসক দলের কথায়, কোথাও কোথাও সরকারে থাকতে অন্য দলের সঙ্গে জোটে যেতে বাধ্য হচ্ছে হাত শিবির। যেমন মহারাষ্ট্র আর তামিলনাড়ু।

প্রসঙ্গত, রাজস্থানের উদয়পুরে চিন্তন শিবিরের শেষ দিনে বক্তৃতা দিয়েছেন রাহুল গান্ধী। যেখানে তিনি তৃণমূল সহ আঞ্চলিক দলগুলিকে ছোটো করেছেন। কংগ্রেস নেতার বক্তব্য, চলতি সময়ে জনগণের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে হাত শিবিরের। কিন্তু তাও ভারতীয় জনতা পার্টিকে হারানোর ক্ষমতা রাখে এই দলই। তাঁর মতে, আঞ্চলিক দলগুলির কোনও আদর্শ নেই। এবার তাতেই আওয়াজ তুলেছে বাংলার শাসক দল।