Aaditya Thackeray: ‘আমাদের চোখের দিকে কী ওঁরা তাকাতে পারবে?’ শিণ্ডে শিবিরকে নিশানা উদ্ধব পুত্রের 

51
Aaditya Thackeray: 'আমাদের চোখের দিকে কী ওঁরা তাকাতে পারবে?' শিণ্ডে শিবিরকে নিশানা উদ্ধব পুত্রের 

মহানগর ডেস্ক: রবিবার মহারাষ্ট্রের নবনির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিণ্ডের শিবিরের (Shinde Camp) বিদ্রোহী বিধায়কদের দিকে তোপ দেগেছেন আদিত্য ঠাকরে (Aaditya Thackeray)। তাঁর বক্তব্য, শিণ্ডেকে সমর্থনকারী বিধায়করা কখনও উদ্ধব শিবিরের চোখের দিকে তাকাতে পারবেন না। এদিন মহারাষ্ট্রে বিধানসভার স্পিকার নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন রাহুল নরবেকর। যার পরই শিণ্ডে শিবিরের বিধায়কদের এক হাত নিয়েছেন উদ্ধব পুত্র।

তাঁর বক্তব্য, “আজকে যে বিধায়করা শিণ্ডে গোষ্ঠীর সঙ্গে জুড়েছেন তারা কী আমাদের চোখের দিকে তাকাতে পারবেন? আপনি কতক্ষণ এক হোটেল থেকে অন্য হোটেলে যাবেন? একদিন তো তাদের বিধানসভা কেন্দ্রে যেতেই হবে। তারা কী তখন জনগণের মুখোমুখি হবেন? এদিকে বিদ্রোহী সেনা বিধায়কদের জন্য কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখে শিণ্ডে নেতৃত্বাধীন সরকার। কঠোর সুরক্ষা ব্যবস্থার সঙ্গে বিদ্রোহী সেনা বিধায়করা বিলাসবহুল হোটেল ছেড়ে বিধানসভা চত্বরে পৌঁছেছিলেন।

আরও পড়ুন : সর্দি কাশিতে ভুগছেন ? হোমিওপ্যাথি ওষুধেই মিলবে ম্যাজিক সমাধান

বিধায়কদের নিরাপত্তার প্রসঙ্গে ঠাকরে বলেন, ‘মুম্বইয়ে এমন নিরাপত্তা এর আগে আমরা দেখিনি। কেন ভয় হচ্ছে? কেউ কী পালিয়ে যাবে? কীসের ভয়?’ রবিবার বিশেষ বাসে করে বিধান ভবন চত্বরে পৌঁছেছিলেন শিণ্ডে শিবিরের বিধায়করা। বিধান পরিষদে ভারতীয় জনতা পার্টির কাছে হেরে ঠাকরে শিবিরের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেন একনাথ শিণ্ডে। তাঁর সঙ্গ দেন বেশ কিছু সেনা বিধায়কও। যার পরেই নড়ে যায় মারাঠা রাজনীতির ভীত।

পরবর্তীতে সেই রাজনৈতিক সংকটের সমাধানের নানারকম চেষ্টা চালায় উদ্ভব শিবির এবং অবশেষে মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ান উদ্ধব ঠাকরে। গত বৃহস্পতিবার মহারাষ্ট্রের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন শিণ্ডে। উপমুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবীশ। পর আজ রবিবার বিধানসভার স্পিকার নির্বাচিত হন বিজেপির বিধায়ক নরবেকর। ১৬৪ ভোট পান তিনি। আগামীকাল অর্থাৎ সোমবার বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে হবে শিণ্ডেকে। রাজনৈতিক উত্তেজনা তুঙ্গে।