Kaali Controversy : হিন্দু ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের কারণে ক্ষমা চাইলো কানাডিয়ান জাদুঘর

72

মহানগর ডেস্ক : লীনা মনিমেকলাইয়ের কালি(Kaali Controversy) তথ্যচিত্রের পোস্টার সামনে আসার পর থেকেই কার্যত ক্ষোভে ফেটে পড়েছে দেশ। দেশের একাংশ জুড়ে শুরু হয়েছে বিক্ষোভ। দিল্লি এবং উত্তর প্রদেশের পুলিশ ইতিমধ্যে এফআইআর দায়ের করেছেন ছবির নির্মাতাদের বিরুদ্ধে। এরই মাঝে কানাডা মিউজিয়ামের তরফ থেকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়া হয়েছে।

আগাখান মিউজিয়ামের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি প্রজেক্ট প্রেজেন্টেশন( প্রকল্প উপস্থাপনা) করার মধ্যে অন্দর দ্য টেন্টের মোট ১৮ টি উল্লেখযোগ্য ভিডিও দেখানো হবে। যার বেশির ভাগ সোশ্যাল মাধ্যমে শেয়ার করা হবে। এই পরিকল্পনা করেছিল তারা। তবে হিন্দু ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত দিয়ে তারা কোনও কিছু করতে চান না। বর্তমানে ওই ছবি প্রদর্শিত হবে না বলে জানিয়েছেন তারা।

আরও পড়ুন, এবার কি রাজ্যসভায় মিঠুন! তোড়জোড় শুরু বঙ্গ বিজেপিতে

একইভাবে ভারতীয় দূতাবাসে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন তারা। জানিয়েছেন, হিন্দু দেব-দেবীদের অপমানজনক পদ্ধতি বা প্রদর্শিত হতে পারে এমন ছবি কোনোভাবেই দেখানো হবে না। একইভাবে ওই মিউজিয়ামের অনুষ্ঠানের আয়োজকদের সামনে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন তারা। যোগাযোগ করেছেন কানাডার বিভিন্ন হিন্দু সংগঠন এর সংজ্ঞা।

উল্লেখ্য, ছবি প্রদর্শন বাতিল হবার পর সিনেমার পরিচালক লীনা জানিয়েছেন,’ আমার কাছে হারানোর মতো কিছু নেই। আমি এটা নিয়ে এগোবো। কোন বাধা আমাকে আটকাতে পারবেনা’। এর আগে ২০০২ মথম নামের একটি ছবি পরিচালনা করে নিজের ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন লীনা। একে একে কাজ করেছেন সিংডল, পারাই, ডিভাইট ভ্যান স্টোরিজ ছবিতে।