Home Featured Case Hearing Through Mobile Phone : প্রযুক্তিগত সমস্যা, মোবাইল ফোনে শুনানি চলল সুপ্রিম কোর্টে

Case Hearing Through Mobile Phone : প্রযুক্তিগত সমস্যা, মোবাইল ফোনে শুনানি চলল সুপ্রিম কোর্টে

by Mani Sankar Debnath

মহানগর ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্টের ( Supreme Court) বেঞ্চে রয়েছেন বিচারপতিরা। আবেদনকারিণীর অবস্থান আদালত থেকে দূরে। আর সেখান থেকেই মোবাইল ফোনে ( Case Hearing Through Mobile Phone) বিচারপতিদের তাঁর বক্তব্য বলে যাচ্ছেন আবেদনকারিণী। এমন অভিনব শুনানির সাক্ষী হল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। কারণ প্রযুক্তিগত সমস্যা (Technical Glitch)। আর সেই কারণেই এমন ব্যবস্থা। আবেদনকারীর দাবি,তাকে ওবিসি ক্যাটেগরির ইনসিওর্ড পার্সন কোটায় ২০১৮-২০১৯ সালের শিক্ষাবর্যে এমবিবিএস আসন দিতে অস্বীকার করা হয়েছে।

আইনে রয়েছে এমপ্লয়িজ স্টেট ইনসুরেন্স হোল্ডারদের সন্তানদের জন্য জাতীয় স্তরে চারশো সাঁইত্রিশটি আসন বরাদ্দ রয়েছে। আবেদনকারিণীর গলার স্বর স্পষ্ট শোনা যাচ্ছিল না তাই বেঞ্চের বিচারপতিরা তাঁর নম্বরে ডায়াল করে বক্তব্য শোনেন। শীর্ষ আদালতের বেঞ্চ আবেদনকারিণীর বক্তব্য শোনার অবশ্য নির্দেশ দেয় যেহেতু বছর চলে গিয়েছে,তাই এই অবস্থায় আবেদন গ্রহণ করা সম্ভব নয়। বেঞ্চ তাদের নির্দেশ রেকর্ড করে জানায় আবেদনকারিণী, যিনি ব্যক্তিগতভাবে হাজিরা দিয়েছেন তিনি অডিওকলের মাধ্যমে আদালতের কাছে তাঁর বক্তব্য রেখেছেন। আদালত তাঁর বক্তব্যের পুরোটাই শুনেছে।

আবেদনকারিণী জানিয়েছেন তিনি বর্তমান ও আগের বছরে নিট পরীক্ষায় বসার সুযোগ পাননি। তাঁর বক্তব্য শোনার পর আদালতে জানায় যোগ্যতার মাপকাঠি পূরণ করে আবেদনকারিণীর স্বাধীনতা রয়েছে পরবর্তী নিট পরীক্ষায় বসার। যদি তারপরও যদি নিয়মবহির্ভূতভাবে ভর্তি না করা হয়, তাহলে এনিয়ে অভিযোগ জানাতে তিনি হয় হাইকোর্ট বা সুপ্রিম কোর্টে সুরাহার জন্য আবেদন করতে পারেন। প্রসঙ্গত, কোভিড অতিমারির পর থেকে শীর্ষ আদালত শারীরিকভাবে উপস্থিত থেকে বা ভার্চুয়াল ব্যবস্থার মাধ্যমে যে কোনও জায়গা থেকে আইনজীবী বা মামলাকারীরা আদালতে শুনানিতে হাজিরা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিচারব্যবস্থায় স্বচ্ছতা আনতে এবং বিচারে অংশ নেওয়ার সুযোগ করে দিতে গত সাতাশে সেপ্টেম্বর এক বিশাল উদ্যোগ নেয় শীর্ষ আদালত। তারা এই প্রথম তিন সাংবিধানিক বেঞ্চের প্রক্রিয়া লাইভ স্ট্রিমড প্রক্রিয়ার ব্যবস্থা করে। একইসঙ্গে ওয়েবকাস্ট ও ইউটিউবে ভিডিওয় দেখানো হয়। যা আট লক্ষ ভিউয়ার দেখেছেন।

You may also like