করোনায় মৃত্যু হলে আর ৫০ লক্ষ টাকা সাহায্য পাবেন না স্বাস্থ্যকর্মীর পরিবার,  নয়া সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের

10
corona

মহানগর ডেস্ক: করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ। দিন রাত এক করে চিকিৎসক, নার্স থেকে শুরু করে অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীরা করোনা রোগীদের সেবা করে চলেছেন। তাঁদের করোনা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা সব থেকে বেশি। তাঁদের সুরক্ষা দিতে প্রধানমন্ত্রী করোনায় মৃত স্বাস্থ্যকর্মীদের ৫০ লক্ষ জীবন বিমা করেছিলেন। কিন্তু সেই জীবন বিমা কেন্দ্র সরকার তুলে নিল বলে জানা গিয়েছে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত মোট ২৮৭ জন করোনা যোদ্ধার পরিবার এই পরিষেবা পেয়েছেন। কিন্তু সেই পরিষেবা এখন থেকে আর পাওয়া যাবে না বলেও তিনি জানান। ২০২০ সালের মার্চে করোনা যখন দেশে মাথা চাড়া দিচ্ছে, সেই সময় এই পরিষেবা চালু করা হয়। সেই পরিষেবা প্রথম তিন মাসের জন্য করা হয়। এরপর মেয়াদ বাড়িয়ে ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত করা হয়। কিন্তু যখন করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মারাত্মক আকার ধারণ করেছে, সেই সময় এই পরিষেবা বন্ধ করা হল। মৃত স্বাস্থ্যকর্মীদের পরিবার ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত বিমার কাগজ জমা করতে পারবেন বলে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে।

দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মারাত্মক আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। গত দুই দিন টানা দেশে করোনা দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই লক্ষ ছাড়িয়েছে। বিভিন্ন রাজ্যে ভেঙে পড়া স্বাস্থ্য ব্যবস্থা প্রতিদিন সংবাদপত্রের শিরোনামে জায়গা করে নিচ্ছে।  পরিস্থিতি সামাল দিতে দিল্লিতে আগামী ছয় দিনের জন্য সম্পূর্ণ লকডাউনের ঘোষণা করা হয়েছে। এই অবস্থাতেও নিজেদের সংক্রমণের, মৃত্যুর ভয় উপেক্ষা করে দিনরাত সেবা করছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। কিন্তু সেই বিমা তুলে নেওয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন অনেকে।