‘হিংসা কারোরই উপকার করে না, যে সম্প্রদায় সহিংসতাকে ভালোবাসে তারা এখন শেষের দিন গুনছে’, নিদান মোহন ভগবতের

108

মহানগর ডেস্ক: বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘ প্রধান মোহন ভাগবত বলেছেন যে সহিংসতা কারও উপকার করে না এবং সমস্ত সম্প্রদায়কে একত্রিত করার এবং মানবতা রক্ষা করার প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দেওয়া উচিত। দেশের বেশ কয়েকটি জায়গায় বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে সাম্প্রতিক সংঘর্ষের পটভূমিতে মোহন ভাগবত এই বক্তব্য রেখেছেন। তিনি সিন্ধি ভাষা ও সংস্কৃত ভাষার অস্তিত্ব নিশ্চিত করার জন্য দেশে একটি সিন্ধি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার প্রয়োজনীয়তার উপরও জোর দেন। আরএসএস প্রধান বলেন যে ভারত একটি বহুভাষিক দেশ এবং প্রতিটি ভাষার নিজস্ব গুরুত্ব রয়েছে।

অমরাবতীর নিকটবর্তী ভানখেদা সড়কের কানওয়াররাম ধামে সন্ত কানওয়ার রামের প্রপৌত্র সাই রাজলাল মোর্দিয়ার ‘গদ্দিনশিনী’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখছিলেন ভাগবত। অনুষ্ঠানে অমরাবতী জেলা এবং দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে সিন্ধি সম্প্রদায়ের শত শত সদস্য উপস্থিত ছিলেন। আরএসএস প্রধান জোর দিয়েছিলেন যে সহিংসতা কারও উপকারে আসে না এবং সমস্ত সম্প্রদায়কে একত্রিত করার এবং মানবতাকে রক্ষা করার আহ্বান জানান।

ভাগবত বলেন,’হিংসা কারোরই উপকার করে না। যে সম্প্রদায় সহিংসতাকে ভালোবাসে তারা এখন শেষ দিন গুনছে। আমাদের সর্বদা অহিংস এবং শান্তিপ্রিয় হওয়া উচিত। এই জন্য প্রয়োজন সকল সম্প্রদায়কে একত্রিত করে মানবতা রক্ষা করা। আমাদের সকলকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এই কাজটি করতে হবে।’

বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশ এবং গুজরাট সহ অনেকগুলো রাজ্যেই রাম নবমী এবং হনুমান জন্মবার্ষিকী উদযাপনের সময় সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষের পটভূমিতে আরএসএস নেতা মোহন ভবগত এই মন্তব্য করেছেন।

দেশের উন্নয়নে সিন্ধি সম্প্রদায়ের ব্যাপক অবদান রয়েছে উল্লেখ করে তিনি সিন্ধি সংস্কৃতি এবং ভাষাকে প্রচার ও সংরক্ষণের জন্য একটি সিন্ধি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রয়োজনীয়তার কথা বলেন।