শান্ত ইউক্রেন! কিয়েভে ফের খুলতে চলেছে ভারতীয় দূতাবাস, বিজ্ঞপ্তি জারি বিদেশমন্ত্রকের

34

মহানগর ডেস্ক: যুদ্ধে বিধ্বস্ত পড়েছে ইউক্রেন। সেখানে ক্রমাগত রুশ সেনার হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন বহু ইউক্রেনীয় বাসিন্দা। এখনও থামেনি যুদ্ধ। প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির নেতৃত্বে এখনও পাল্টা আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছে ইউক্রেনীয় সেনা। এমন পরিস্থিতিতে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে আগের মতো দূতাবাস চালু করার কথা ঘোষণা করল ভারতীয় বিদেশমন্ত্রক।

শুক্রবার বিদেশমন্ত্রকের তরফ থেকে জারি করা এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, আগামী ১৭ মে থেকে ইউক্রেনের রাজধানী রাজধানী কিয়েভের ভারতীয় দূতাবাসে আগের মতোই কাজ করবে কর্মীরা। প্রসঙ্গত, গত ১৩ মার্চ যুদ্ধের কারণে বিধ্বস্ত ইউক্রেনের রাজধানী শহর থেকে ভারতীয় দূতাবাস সাময়িকভাবে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল পোল্যান্ডের ওয়ারশে। সাময়িকভাবে পরিস্থিতির দিকে নজর রাখলে দেখা যাবে এখনও স্তব্ধ হয়নি ইউক্রেন ও রাশিয়ার যুদ্ধ। এমন পরিস্থিতিতে কিয়েভে আবার নতুন করে দূতাবাস খোলার অর্থই হল, পরিস্থিতি খানিকটা হলেও স্বাভাবিক রয়েছে ওই শহরে।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে উপর হামলা শুরু করে রাশিয়া। পর পাল্টা আক্রমণ চালায় ইউক্রেনও। এমন পরিস্থিতিতে প্রতিনিয়ত বোমা এবং গোলাগুলির মাঝে ভারতীয় পড়ুয়াদের ওই দেশ থেকে উদ্ধার করতে নেমে পড়ে ভারত সরকার। সেই সময় ভারতকে প্রচুর সাহায্য করেছিল কিয়েভ এবং মস্কো। অপারেশন গঙ্গার মাধ্যমে দ্রুতই ওই দেশের আটকে পড়া ভারতীয় পড়ুয়াদের দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা শুরু হয়। ভারতের বিভিন্ন মন্ত্রীরা পর্যন্ত বিদেশে গিয়ে নিজের হাতেই সমস্ত ব্যবস্থা করে ফিরিয়ে এনেছিলেন পড়ুয়াদের।

এমন পরিস্থিতিতে রাশিয়ার আক্রমণ আটকাতে ভারতের কাছে বারংবার সাহায্য চাইতে দেখা গিয়েছিল ইউক্রেনকে। এমনকি ইউক্রেনের বিদেশমন্ত্রীও জানিয়েছিলেন, ভারত যদি চায় এই যুদ্ধে থামাতে মধ্যস্থতাকারীর কাজ করতে পারে।