Cpm Minister Under Fire : ভারতের সংবিধানের কড়া সমালোচনা, বিতর্কে কেরলের বামমন্ত্রী

54
cpm minister slams constitution
ভারতীয় সংবিধানের সমালোচনা করে বিতর্কে কেরলের বাম মন্ত্রী।

মহানগর ডেস্ক: ভারতীয় সংবিধানের (Indian Constitution) কড়া সমালোচনা করে বিতর্কের মুখে বাম শাসিত কেরলের মন্ত্রী (LDF Minister) এবং সিপিএম নেতা সাজি চেরিয়ান। কিছুদিন আগে কেরল হাইকোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ( Karala HighCourt) জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের (Pinarai Vijayan) তাঁকে ইস্তফা দিতে বলা উচিত। এদিন সিপিএমের সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতিকে নিশানা করে ভারতীয় সংবিধানের সমালোচনা করেন চেরিয়ান।

পাঠানামাথিয়াট্টায় দলীয় সভায় চেরিয়ান রীতিমতো উষ্মার সুরে বলেন, ভারতীয় সংবিধানে শ্রমিক শ্রেণির জন্য কোনও সুরক্ষার কথা নেই। বদলে ধর্মনিরপেক্ষতা, গণতন্ত্রের মতো বোকা বোকা কথার উল্লেখ রয়েছে। আসলে এই সংবিধান হল ব্রিটিশরা যা বলে গেছে এবং একজন ভারতীয় তা লিখেছেন। যদি কিছু লেখা থাকে, সেটা হল লুট। শ্রমিকদের জন্য কিছুই নেই। এদিন বিচারব্যবস্থারও কড়া সমালোচনা করেন বামমন্ত্রী। বলেন, আদালতে শ্রমিকদের মামলাগুলিতে ব্যবসায়ীদেরই স্বার্থ দেখা হয়। যা আদানি এবং আম্বানিদের সাহায্য করে থাকে।

দুদফার বিধায়ক ও মন্ত্রী চেরিয়ানের এই বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছে বিরোধীরা। বিধানসভায় বিরোধীদলের নেতা ভিডি সাথিসান জানান, চেরিয়ান যা বলেছেন, তা গ্রহণযোগ্য নয়। তাঁরা মুখ্যমন্ত্রীকে চেরিয়ানকে ইস্তফা দেওয়ার দাবি জানাচ্ছেন। যদি মুখ্যমন্ত্রী কোনও পদক্ষেপ না নেন, তাহলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অন্যদিকে কেন্দ্রের বিদেশ প্রতিমন্ত্রী ভি মুরলীধরণ চেরিয়ানের কড়া সমালোচনা করে বলেন কেরলের মন্ত্রী সংবিধানকে অপমান করেছেন। তিনি দেশবিরোধী বক্তব্য বলেছেন। সবচেয়ে আশ্চর্যের ব্যাপার হল তিনি এখন তার ব্যাখ্যা দিচ্ছেন। চেরিয়ান সংবিধান সম্পর্কে বিন্দুবিসর্গ জানেন না। ৭৫ বছর আগে যে সংবিধান রচনা হয়েছিল তাতে ধর্মনিরপেক্ষতার কোনও উল্লেখ ছিল না।