বোমার ঘায়ে মৃত্যু সিপিএম কর্মীর, পথ অবরোধ, উত্তেজনা মুর্শিদাবাদে

11
kolkata news

নিজস্ব প্রতিনিধি : বোমার ঘায়ে মৃত্যু সিপিএম কর্মীর। মৃতের নাম আবুল কাশেম আলি। ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার রাতে মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়ায় পথ অবরোধ করেন বাম, কংগ্রেস এবং আইএসএফের কর্মী-সমর্থকরা। ওই ঘটনায় সাত তৃণমূল কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

প্রাক নির্বাচন পর্বে রক্ত ঝরল মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়ার খোসলপুর এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে খবর, ওই এলাকার আবুল দীর্ঘদিনের সিপিএম কর্মী। চলতি বিধানসভা নির্বাচনে তিনি প্রচার করছিলেন সংযুক্ত মোর্চার কংগ্রেস প্রার্থীর হয়ে। জোটের হয়ে প্রচার করায় তাঁকে একাধিকবার হুমকিও দেওয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ। সোমবার রাতে প্রচারের কাজ সেরে বাড়ি ফিরছিলেন আবুল। অভিযোগ, ওই সময় আচমকাই তাঁকে লক্ষ্য করে কয়েকজন দুষ্কৃতী বোমা ছোঁড়ে বলে অভিযোগ। আবুল লুটিয়ে পড়লে দুষ্কৃতীরা পালায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় আবুলকে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন তাঁকে। আবুলের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই খেপে যান জোট কর্মীরা। শুরু হয় বিক্ষোভ প্রদর্শন। নিশ্চিন্তপুর মোড় এলাকায় অবরোধ করেন বাম, কংগ্রেস এবং আব্বাসের ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের কর্মী-সমর্থকরা। দোষীদের গ্রেফতারির দাবিতে সোচ্চার হন তাঁরা। আবুলের মৃত্যুর খবর পেয়ে এলাকায় আসেন কংগ্রেস প্রার্থী। তিনিও দোষীদের কঠোর শাস্তি দাবি করেন। পরে পুলিশি আশ্বাসে অবরোধ ওঠে। ওই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে সাতজনকে। তারা এলাকায় তৃণমূল কর্মী হিসেবে পরিচিত। দোষীদের খুঁজে বের করতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

২৯ এপ্রিল নির্বাচন হবে হরিহরপাড়ায়। তার আগে সিপিএম কর্মীর খুনে এলাকায় ছড়িয়েছে উত্তেজনা। জোট নেতৃত্বের অভিযোগ, তৃণমূলের লোকজনই বোমা মেরে খুন করেছে আবুলকে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছেন রাজ্যের শাসকদল।