অ্যাকাউন্ট খোলা নিয়ে আর হয়রানি হতে হবে না, সমবায় ব্যাঙ্কেই মিলবে শস্য বিমার টাকা

106
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, হুগলি: ব্যাঙ্কে লিঙ্ক নিয়ে সমস্যার কারণে সহজে অ্যাকাউন্ট খোলা যায় না। ফলে কৃষক বন্ধু বা শস্য বিমা যোজনার সুবিধাও পায় না গরীব কৃষকরা। মঙ্গলবার হুগলির গুড়াপে জেলা প্রশাসনিক বৈঠকে কৃষকদের এই সমস্যার সমাধানও বাতলে দিলেন ‘মুশকিল আসান’ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার থেকে সমবায় ব্যাঙ্কের মাধ্যমেই কৃষক বন্ধু-র সদস্য হওয়া যাবে এবং শস্য বিমার টাকাও মিলবে।

জেলায় সমবায় ব্যাঙ্কগুলি যথেষ্ট কার্যকর জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যাদের অ্যাকাউন্ট নেই, তারা সমবায় ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট করুন এবং কৃষক বন্ধু প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করান। এবার থেকে সমবায় ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টে শস্য বিমা যোজনার টাকা পাওয়া যাবে।’ সরকারি বা বেসরকারি ব্যাঙ্কে মানুষের হয়রানি কমাতেই সমবায় ব্যাঙ্কগুলিকে কৃষক বিমার কাজের সঙ্গে সংযুক্ত করার এই উদ্যোগ বলেও জানান তিনি। এদিন গুড়াপের প্রশাসনিক বৈঠকেই অবিলম্বে সমস্ত সমবায় ব্যাঙ্কগুলিকে কৃষক বন্ধু প্রকল্পের সঙ্গে সংযুক্ত করার ব্যাপারে সরকারি আধিকারিকদের নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী।

কোনওভাবে সরকারি কাজে মানুষ যাতে হয়রানির শিকার না হয়, সেদিকে লক্ষ্য রাখার জন্য বিডিও থেকে শুরু করে মহকুমাশাসক ও জেলাশাসককেও নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে জেলার সমস্ত পরিস্থিতির উপর নজর রাখার নির্দেশ দিয়ে এদিন মমতা বলেন, ‘হুগলি স্পর্শকাতর জেলা। এই জেলার উপর বিশেষ নজর দিতে হবে।’ জেলার মানুষেরা যেন কোনও সরকারি কাজে হয়রানির শিকার না হয়। সরকারি কাজে মানুষের হয়রানি কমাতে হবে এবং সেদিকে বিডিও, জেলাশাসককেই নজর রাখতে হবে।

উল্লেখ্য, আগামী বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে রাজ্যের প্রতিটি জেলায় গিয়ে জনসংযোগ কর্মসূচি শুরু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জেলা আধিকারিকদের সঙ্গে নিয়ে প্রশাসনিক বৈঠক করার পাশাপাশি গ্রামে গিয়ে গ্রামবাসীর সঙ্গেও কথা বলছেন তিনি। গ্রামবাসীদের অভাব-অভিযোগের কথা শুনছেন। হুগলি জেলাও এর ব্যতিক্রম হয়নি। বরং হাতছাড়া হয়ে যাওয়া হুগলিকে আবার পুনর্দখল করতে হুগলিবাসীর সাধারণ মানুষের সমস্যা মেটাতে উদ্যোগী হয়েছেন মমতা।