ভোটে লড়ার টিকিট দেয়নি কংগ্রেস, ক্ষোভে দলত্যাগ করলেন গুলাবি গ্যাংয়ের প্রতিষ্ঠাতা সম্পত পাল

11

মহানগর ডেস্ক: দেশের পাঁচ রাজ্যে বেজে গিয়েছে ভোটের দামামা। আর এই পাঁচ রাজ্যের তালিকায় রয়েছে দেশের গরিষ্ঠ রাজ্যের নামও। উত্তরপ্রদেশের এই আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে পাথেয় করেই নিজেদের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে মরিয়া রাজ্যের রাজনৈতিক দলগুলো। আর এই হেভি ওয়েট ভোটের আগে বড়সড় ধাক্কা খেল হাত শিবির।

গত সপ্তাহেই ১২৫ জনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে কংগ্রেস। আর সেই তালিকায় উন্নাও কাণ্ডের নির্যাতিতার মায়ের , আশা কর্মীর, লখিমপুর খেরিতে পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় লাঞ্ছিত হওয়া ব্লক আধিকারিকদের নাম থাকলেও বাদ দেওয়া হয়েছে সম্পত পালের নাম। আর এতেই চটেছেন প্রখ্যাত গুলাবি গ্যাংয়ের প্রতিষ্ঠাতা।

আর কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ভোটে লড়ার টিকিট না দেওয়ায় গত সপ্তাহের শুক্রবার দলত্যাগ করেছেন সম্পত পাল। এরপর এক সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে তিনি বলেন,’ বান্দার মানিকপুর আসন থেকে আমাকে প্রার্থী করা হয়নি বলে আমি কংগ্রেসের সমস্ত পদ থেকে পদত্যাগ করেছি৷ যে মহিলারা আমার চেয়ে কম ভোট পেয়েছেন তাঁরা একই আসন থেকে প্রার্থী হয়েছেন। আর আমি কংগ্রেসকে শক্তিশালী করতে কত বছর ধরে কঠোর পরিশ্রম করেছি, আমার গুলাবি গ্যাং সদস্যরা শুধু উত্তরপ্রদেশে নয়, অন্যান্য রাজ্যেও কংগ্রেসকে সমর্থন করেছে, আর আমাকেই বঞ্চিত করা হল।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, নারীদের বিরুদ্ধে হওয়া বিভিন্ন অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলে এই গুলাবি গ্যাং। ২০০৬ সালে সম্পত পাল দেবীর নেতৃত্বে নারীদের অধিকারের দাবিতে তৈরি করা হয়েছিল এই সংগঠনটি। বর্তমানে এই সংগঠনে ৪ লক্ষেরও বেশি সদস্য রয়েছেন এবং এই গুলাবি গ্যাংয়ের প্রত্যেক সদস্যই গোলাপি শাড়ি পরিধান করেন বলেই সেই অনুসারে দলের এই নামকরণ করা হয়েছিল।