‘সনাতনী হিন্দু কি?’ ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে বিরোধী দলনেতাকে খোঁচা দিলীপ ঘোষের আপ্ত সহায়কের

25

মহানগর ডেস্ক: ক্রমশ প্রকাশ্য দিলীপ ঘোষ ও শুভেন্দু অধিকারীর অন্তর্দ্বন্দ্ব। মঙ্গলবার জানা গিয়েছিল, দলের বিদ্রোহীদের উস্কানি দিচ্ছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এবং সেই অভিযোগেই দিল্লির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে নালিশ জানান বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এবং বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এবার ফের একবার সোশ্যাল মিডিয়ায় বিরোধী দলনেতাকে নিয়ে সরব হলেন দিলীপ ঘোষের আত্মসহায়ক। তিনি লিখলেন সনাতন হিন্দু ব্যাপারটা কি? যদি একটু বুঝিয়ে বলা যায়।

বেশ কয়েকদিন ধরেই শুভেন্দু নিজেকে সনাতনী হিন্দু বলেই দাবি করছেন, একাধিক জায়গায় সনাতনী হিন্দু বলে প্রচার চালিয়েছেন তিনি, এবার সেই বিষয়টিকে নিয়েই খোঁচা দিল দিলীপ শিবির। এর থেকে স্পষ্ট যে ক্রমাগত বঙ্গ বিজেপি ভাঙনের মুখে এগিয়ে চলেছে। দিলীপ ঘোষের আত্মসহায়ক দেব সাহা ফেসবুকের একটি পোস্টে উল্লেখ করেছেন, কেউ একটু বোঝাবে সনাতনী হিন্দু কি? লাস্ট ৬ মাস থেকে শুনছি, প্রায় ১০০ বছর আগে এরকম কথা শোনা যেত। বিধানসভা নির্বাচনের আগেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তার একবছর পূর্তিও হয়ে গিয়েছে। আর বিজেপিতে যোগদানের পরেই তার মুখে শোনা যায় সনাতনী হিন্দু শব্দটি।

রাজনৈতিক মহলের একাংশের দাবি করেছে শুভেন্দু অধিকারী ও দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে যাওয়াতেই বিরোধী দলনেতাকে কটাক্ষ করেই এই পোস্ট। সুতরাং আরও স্পষ্ট হল দিলীপ ঘোষ বনাম শুভেন্দু অধিকারীর লড়াই। যদিও এই পোষ্ট সম্পর্কে কোনও মন্তব্য করেননি দিলীপ ঘোষ। এমনকি প্রতিক্রিয়া দেননি শুভেন্দু অধিকারী। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি দলের অন্দরে শুরু হয়েছে মতুয়া বিদ্রোহ। একাধিক নেতাকর্মীরা দলের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছেড়ে বেরিয়ে এসেছে। তাদের ইন্ধন যোগাচ্ছে দিলীপ ঘোষ, এমনটাই অভিযোগ তুলেছে শুভেন্দু অধিকারী ও সুকান্ত মজুমদার। সেই অভিযোগ কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে জানিয়েছে তারা। আর এখান থেকেই বঙ্গ বিজেপি যে দুটি ভাগে ভাগ হতে চলেছে তাও স্পষ্ট।