অসন্তোষ তো অনেকের বিরুদ্ধেই আছে: দলীয় কোন্দল প্রসঙ্গে বললেন দিলীপ ঘোষ

5

মহানগর ডেস্ক: শুক্রবার সকালে মর্নিং ওয়াকে বেরিয়েছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এদিন তিনি হাওড়া জেলা সভাপতি সুরজিৎ সাহাকে বহিষ্কার করা নিয়ে জবাব দিতে গিয়ে, বলে ফেললেন দলের অন্দরে ক্ষোভের কথা। যা নিয়ে যথারীতি নতুন করে গুঞ্জন শুরু হয়েছে বিজেপি মহলে।

বৃহস্পতিবার দিলীপ বাবুকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে কারোর নাম না-করেই তিনি বলেছেন, ‘অসন্তোষ তো অনেকের বিরুদ্ধেই আছে। আমার বিরুদ্ধেও থাকতে পারে।’ দিলীপ ঘোষের এমন মন্তব্য থেকে স্পষ্ট হয়ে গেছে, শুভেন্দুর বিরুদ্ধে দলে অসন্তোষ রয়েছে। সঙ্গে তিনি নিজের বিরুদ্ধে অনেকের অসন্তোষ আছে বলে, বিষয়টিকে ছোট করে দেখানোর চেষ্টা করেছেন।

হাওড়া জেলা সভাপতির পদ থেকে সুরজিৎ সাহাকে বহিস্কার করা হলে, এ নিয়ে দিলীপ বাবুকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘কেউ দলের শৃঙ্খলা ভাঙলে দল তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেই। এটাই তো দলের পক্ষে যুক্তিসঙ্গত কাজ। আর নেতা দিয়ে ভোট জেতা যায় না। বুথ স্তরের কর্মীরাই লড়াই করেন। সেই লড়াইয়েই দলের জয় আসে। সুতরাং এই সব ক্ষোভ-বিক্ষোভে খুব বেশি প্রভাব ফেলবে না।’

প্রসঙ্গত, শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে গত বুধবার হাওড়া জেলা সভাপতি উগড়ে দিয়েছিলেন নিজের ক্ষোভ। তিনি বলেছিলেন, ‘আমি ২৮ বছর ধরে বিজেপির সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। উনি ছমাস দলে এসে আমাদের শংসাপত্র দেবেন? আমরা পাল্টা ওঁর শংসাপত্র চাইব। নারদাতে ওঁকে যে টাকা নিতে দেখা গিয়েছে তাতে উনি সৎ কি না, এই প্রশ্নটা জনগণ থেকে দলের কার্যকর্তা সকলের মধ্যে তৈরি হয়েছে। উনি আমাদের বিরুদ্ধে আঙুল তুলবেন, আর এটা আমি একজন জেলা সভাপতি হিসাবে মেনে নেব না।’ আর তারপরই তাঁকে জেলা সভাপতির পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়।