‘এলাকার ফ্রড লোকেদের পাল্লায় পড়বেন না’, দলীয় বিধায়কের দুর্নীতি নিয়ে কড়া বার্তা মহুয়ার

135

মহানগর ডেস্ক: নদিয়ার বিধায়ক তাপস সাহার বিরুদ্ধে কয়েক কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। চাকরি পাওয়ার নামে প্রতারণার শিকার হয়েছেন বহু মানুষ। এমনকি এই প্রতারণার ফাঁদে পা দিয়েছেন তৃনমূলের এই নেতারই ভাগ্নে, এছাড়াও এলাকার এক দাপুটে নেতা জামাইও। এমন পরিস্থিতিতে আবারও সোশ্যাল মিডিয়ায় কড়া বার্তা দিলেন সাংসদ মহুয়া মৈত্র।

নিজের সংসদীয় এলাকার বিধায়ক এর বিরুদ্ধে এমনই কোটি কোটি টাকার তছরুপের অভিযোগ ওঠায় চাপের মুখে রয়েছেন সাংসদ মহুয়া মৈত্র। এদিন ফেসবুকে তিনি কড়া ভাষায় লেখেন, “সবাইকে সতর্ক করতে চাই – তেহট্ট, পলাশীপাড়া এলাকাতে একটি চক্রর অভিযোগ অনেকজন করছে। ২০১৩ সালের কোর্টের রায়কে অন্যায়ভাবে ঢাল করে ৬ নম্বর বাড়িয়ে ব্যাকডেটে TET প্যানেলে নাম নথিভুক্ত করার চক্র চলছে। আজ নয়তো কাল এই চক্রটিও ফাঁস হবে।”

এরপরই সাংসদ এলাকাবাসীদের উদ্দেশ্যে লেখেন, “জনসাধারণকে আবার সতর্ক করছি – এই সব ফ্রড লোকেদের পাল্লায় পড়বেন না, তাঁদের পেছনে ঘুরবেন না। অভিযোগ থাকলে নির্ভয়ে পুলিশ প্রশাসন ও সাংসদ অফিসে এসে লিখিত ভাবে অভিযোগ জানান।”

প্রসঙ্গত, তৃণমূল বিধায়ক তাপস সাহার বিরুদ্ধে মোট ১৬ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। এই বিষয়টিও আর আঞ্চলিকভাবে সীমাবদ্ধ নেই। কারণ এলাকার নেতারা বিষয়টি লিখিতভাবে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে জানিয়েছেন। জানা যাচ্ছে, তৃণমূলের তরফ থেকে আলাদা ভাবে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। তাপস সাহার পাল্টা চ্যালেঞ্জ, তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা যদি একটি অভিযোগও যদি সত্যি প্রমাণিত হয়, তাহলে তিনি নিজে পদত্যাগ করবেন।