Draupadi Murmu : এক ছেলের রহস্য মৃত্যু, অন্য ছেলের অ্যাক্সিডেন্টে, স্বামীও গত হয়েছেন

227
Draupadi Murmu: রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হয়ে হাতে তুলে নিলেন ঝাড়ু, ভাইরাল দ্রৌপদীর ভিডিও

রাষ্ট্রপতি ভবনের খুব কাছে এসে গিয়েছেন দ্রৌপদী মুর্মু (Draupadi Murmu)। বিরোধী প্রার্থীকে হারাতে পারলেই তিনি হবেন স্বাধীন ভারতের প্রথম আদিবাসী রাষ্ট্রপতি। হাতে গেরুয়া পদ্ম থাকলেও ওড়িশার ময়ূরভঞ্জ থেকে দিল্লির রাইসিনা হিলের রাস্তাটা দ্রৌপদীর কাছে মোটেও মনোরম ছিল না।

তিন সন্তানের মা দ্রৌপদী মুর্মু। যার মধ্যে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এক ছেলের মৃত্যু রহস্যজনক। অন্য ছেলে প্রায়ত হয়েছিলেন দুর্ঘটনায়। অকালে চলে গিয়েছেন তাঁর স্বামী শ্যাম চরণ মুর্মু। মেয়ে ইতিশ্রী ব্যাংকে চাকরি করেন। ২০০৯ থেকে ২০১৫ সাল, এই সময়কালটা দ্রৌপদী চাইলেও ভুলতে পারবেন না।

ব্যক্তিগত জীবনে বিপর্যয় নেমে এলেও দ্রৌপদী মুর্মু কখনও হাল ছেড়ে দেননি। স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার জন্য কখনও-বা ধ্যান করেছেন আপন মনে।

ওড়িশায় জয় ধ্বজা ওড়ানোর জন্য ভারতীয় জনতা পার্টির নজরে পড়েছিল ময়ূরভঞ্জ। মূলত সাঁওতাল অধ্যুষিত এই এলাকা। সামাজিক ক্ষেত্রে দ্রৌপদীর আসন ছিল একটু উঁচুর দিকে। মানুষের সঙ্গে খুব ভালো কথা বলতে পারেন। সাঁওতাল, ওড়িয়া ভাষায় দখল রয়েছে তাঁর। দ্রৌপদীকে বেছে নিয়ে বিজেপির কোনো সমস্যা হয়। দলের হয়ে কাজ করতে দ্রৌপদীরও সমস্যা হয়নি।

দুইয়ে দুইয়ে চার হতে দেরি হয়নি। ওড়িশায় ক্রমে জাঁকিয়ে বসল বিজেপি। মুর্মুর রাজনৈতিক কেরিয়ারও অচিরে দিয়েছে একটা লং জাম্প। দলের টিকিটে একাধিকবার এমএলএ হয়েছেন। ক্ষমতায় আসার পর উল্লেখযোগ্য কাজও করেছেন বলে বিজেপির তরফে দাবি করা হয়। পরবর্তীকালে হয়েছিলেন ঝাড়খণ্ডের রাজ্যপাল। এখন রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী।