সেরে উঠলেও মুক্তি নেই করোনা থেকে, ফিরে আসতে পারে ১০৩ দিন পর

6

মহানগর ডেস্ক: কোভিড আক্রান্ত হয়েছিলেন একবার, সেরেও উঠেছেন। শরীরে তৈরি হয়ে গিয়েছে অ্যান্টিবডি। আর করোনা আক্রমণের কোনও সম্ভবনা নেই। এমনটাই ধারনা ছিল সাধারণ মানুষের। তবে এই ধারণা যে আকেবারেই ভুল সেই তথ্যই জানা গিয়েছে এক গবেষণায়।

বাংলায় করোনা আক্রান্ত্রের গ্রাফ ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৫৯,৯২৭ ছাড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ৭ হাজারেরও বেশি। এই অবস্থাতে চাঞ্চল্যকর দাবি করল ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর মেডিক্যাল রিসার্চের এক গবেষণা। তথ্য অনুযায়ী, বর্তমান আক্রান্তের সংখ্যার চার থেকে পাঁচ শতাংশ মানুষ যারা সংক্রমিত হয়েছেন তাঁরা এর আগেও একবার সংক্রমিত হয়েছিলেন। এটা তাঁদের পুনঃসংক্রমন। ২০২০ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত যারা আক্রান্ত হয়েছিলেন তাঁরা ভেবেছিলেন তাঁদের শরীরে তৈরি হয়েছে অ্যান্টিবডি ফলে তাঁদের করোনার সংক্রমণের সম্ভবনা নেই।

এই ধারণাকে মিথ্যা প্রমান করে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর মেডিক্যাল রিসার্চের এপিডেমিওলজি অ্যান্ড কমিউনিকেবেল ডিজিজের প্রধান ডক্টর সমীরণ পাণ্ডা জানিয়েছেন, ‘শরীর অঙ্কের হিসেবে চলেনা, কাজেই পুনরায় আক্রান্ত হতেই পারে। তবে তথ্য অনুযায়ী, একবার আক্রান্ত হলে পরবর্তী তিনমাস দশদিন অর্থাৎ ১০২ দিন মত নিরাপদে থাকতে পারবেন তিনি। তার পরে পুনরায় আক্রান্ত হতে পারেন। ডক্টর পাণ্ডা আরও জানিয়েছেন, একবার পজেটিভ রিপোর্ট আসলে পরে নেগাটিভ হয়ে আবারও পসেটিভ হলে সেটি পুনসংক্রমন। তবে কেউ টানা অনেকদিন যদি পসেটিভ থাকেন সেটি পুনঃসংক্রমন নয়। কিন্তু একবার করোনা আক্রান্ত হয়ে সেরে উঠলেও ঢিলেমি দেওয়া যাবেনা সুরখহাবিধিতে। পরতে হবে মাস্ক, ব্যাবহার করতে হবে স্যানিটাইজার বজায় রাখতে হবে সামাজিক দূরত্ব।