‘ঠাকুর ঘরে কে আমি তো কলা খাইনি’, বিজেপির মহা মিছিল নিয়ে কটাক্ষ ফিরহাদ হাকিমের

94

মহানগর ডেস্ক: একদিকে তৃণমূলে পালিত হচ্ছে জয়ের বর্ষপূর্তি। অন্যদিকে বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর রাজ্যে যে হিংসার ছবি ফুটে উঠেছিল সেই হিংসার প্রতিবাদে আজ মহা মিছিলের আয়োজন করেছে বিজেপি। গোটা কলকাতায় আজ মহামিছিল করছে তারা। সেই মিছিলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন সুকান্ত মজুমদার ও শুভেন্দু অধিকারী সহ একাধিক প্রথম সারির নেতারা। এবার সেই নিয়েই মন্তব্য করলেন রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী তথা কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি জানিয়েছেন, যারা দিল্লিতে রায়ট করে ৫২ জনকে খুন করে, গোটা দেশে দাঙ্গা চালিয়ে চলেছে, তাদের ক্ষেত্রে একটাই প্রবাদ উঠে আসে, ‘ঠাকুর ঘরে কে, আমি তো কলা খাইনি’।

পাশাপাশি তিনি আরও জানিয়েছেন, নিজেরা নিজেদের সঙ্গে ঝগড়া অশান্তি করবে, কিন্তু জোর করে তৃণমূলের উপর দোষ চাপাবে। এটাই বিজেপির নীতি। মহা মিছিল নিয়ে দিলীপ ঘোষ দাবি করেছেন, আজকের দিনে আমাদের বহু কর্মীর ওপরে অত্যাচার করা হয়েছে। নির্যাতন চালানো হয়েছে। খুন করা হয়েছে। আজকের দিনটি আমরা ভুলব না, কাউকে ভুলতেও দেব না।

প্রসঙ্গত, সোমবার দুপুর দুটোয় সুবোধ মল্লিক স্কয়ার থেকে রানী রাসমণি এভিনিউ পর্যন্ত মহামিছিলের আয়োজন করেছিল বিজেপি। দিলীপ ঘোষ আরও জানিয়েছেন, এই দিনটিকে আমরা কোনদিনও ভুলব না। কিভাবে গণতন্ত্রকে পিষে মারা হয়েছিল। বর্ষপূর্তি উপলক্ষে টুইট করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, গত বছর এই দিনে দেশের কর্তা-ব্যক্তিদের আস্ফালনের বিরুদ্ধে বাংলার মা মাটি মানুষ তাদের অদম্য সাহসের পরিচয় রেখেছিলেন। সেজন্য আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। মা-মাটি-মানুষ আজকের দিনটি তাদের জন্য উৎসর্গ করলাম। সকলের কাছে আমার আহবান আজ থেকে এই দিনটি মা মাটি দিবস হিসেবে পালিত হবে। জয় হিন্দ। জয় বাংলা।

উল্লেখ্য, গত বছর অর্থাৎ ২০২১ সালের ২ মে গোটা বাংলায় ছিল টানটান উত্তেজনার দিন। বিপুল ভোটে জয়যুক্ত হয়েছে তৃতীয়বার বাংলার মসনদে বসে ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সরকার গঠন করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু তার বিপরীতে ফুটে উঠেছিল সন্ত্রাসের ছবি। একাধিক মানুষ ঘরছাড়া হয়েছিলেন। অত্যাচার চালানো হয়েছিল একাধিক মানুষের ওপর। তারই প্রতিবাদে রাজপথে নেমেছে বিজেপি।