৬১-তে পা ‘কপিল পাজি’র, এক নজরে কপিল দেব সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য

6
bengali cricket news

Highlights

  • তাঁর নেতৃত্বেই ১৯৮৩ সালে ক্লাইভ লয়েডের অপরাজেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত
  • ১৯৭৫ সালে হরিয়ানার হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল কপিল দেবের
  • ১৯৮২ সালের শ্রীলঙ্কা সিরিজে প্রথমবার ক্যাপ্টেন্সির দায়িত্ব পান তিনি

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ৬১ বছরে পা দিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক কপিল দেব নিখাঞ্জ। দেশের সেরা অল রাউন্ডারের নেতৃত্বেই ১৯৮৩ সালে ক্লাইভ লয়েডের অপরাজেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত।

১৯৭৫ সালে হরিয়ানার হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল কপিল দেবের। সেই ম্যাচেই ছয় উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। এরপর ১৯৭৮ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতীয় টেস্ট দলে অভিষেক হয় তাঁর। ১৯৮২ সালের শ্রীলঙ্কা সিরিজে প্রথমবার ক্যাপ্টেন্সির দায়িত্ব পান তিনি। আর তারপরেই ঐতিহাসিক ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ। গোটা টুর্নামেন্টে ব্যাট হাতে ৩০৩ রান করার পাশাপাশি ১২টি উইকেটও নিয়েছিলেন কপিল পাজি। জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে খেলেছিলেন অবিস্মরণীয় ১৭৫ রানের ইনিংস।

এক নজরে কপিল দেব সম্পর্কে পাঁচটি অজানা তথ্য:

১. নিজের ঘরোয়া ক্রিকেট কেরিয়ারে একবারই রঞ্জি ট্রফি জিতেছেন কপিল দেব। ১৯৯১ সালে হরিয়ানার হয়ে।

২. নিজের ১৬ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেরিয়ারে একবারও রান আউট হননি কপিল দেব।

৩. কপিল দেব ক্রিকেট ছাড়ার পর গলফ খেলা শুরু করেন। লরেন্স ফাউন্ডেশনের একমাত্র এশিয়ান প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হলেন তিনি।

৪. ২০০২ সালে উইজডেনের বিচারে শতকের সেরা ভারতীয় ক্রিকেটার মনোনীত হয়েছিলেন তিনি।

৫. কপিল দেবই একমাত্র ক্রিকেটার যার কমপক্ষে ৫০০০ রান ও ৪০০ উইকেট নেওয়ার নজির আছে।

জন্মদিনে কপিল দেবকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অন্যান্য ভারতীয় তারকারা।