সিলিন্ডারে আগুন লেগে বিস্ফোরণে উড়ে গেল বাড়ি, অগ্নিদগ্ধ একই পরিবারের পাঁচ

39

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিউড়ি: পাঞ্জাব থেকে বহুদিন হল এসেছেন এ রাজ্যে। পেশায় গাড়ির চালক কৈলাশ সিং দুই ছেলে স্ত্রী ও দিদিকে নিয়ে বীরভূমের সেওরাকুড়ি গ্রামেই বসবাস করছেন দীর্ঘদিন ধরে। রবিবার কাজ সেরে বাড়ি ফিরেছিলেন কৈলাশ, গ্যাসে রান্না চাপিয়েছিলেন স্ত্রী। আর তখনই বিকট শব্দে ছেয়ে যায় গোটা এলাকা। গ্যাস সিলিন্ডারে আগুন লেগে ভয়াবহ বিস্ফোরণে উড়ে যায় বাড়ির টিনের ছাউনি। ছিন্ন ভিন্ন হয়ে যায় আসবাবপত্র। পরিবারের সদস্যদের অবস্থা চোখের দেখার মতো ছিল না, জানিয়েছেন প্রতিবেশীরা। আগুনে ঝলসে যান বাড়ির পাঁচজনই। বীরভূমের মহম্মদ বাজার থানার সেওরাকুড়ি গ্রামে বিস্ফোরণের ঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে সকলকেই বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত রবিবার রাত্রে কৈলাস সিং নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারে আগুন লেগে বিস্ফোরণ ঘটে। সেই বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই ছিল টিনের ছাউনি, রান্নাঘর এবং বসতবাড়িটি সম্পূর্ণরূপে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিস্ফোরণের ঘটনায় পরিবারের পাঁচ জন সদস্য আগুনে ঝলসে গুরুতর জখম হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে । তারা হলেন স্ত্রী দেবী সিং, দুই ছেলে সঙ্গম ও দিলখুশ এবং কৈলাসের দিদি নিভা সিং। ওই পরিবার পাঞ্জাবের বাসিন্দা হলেও দীর্ঘদিন ধরে সেওরাকুড়ড়ি গ্রামেই থাকত। কৈলাশ পেশায় গাড়ির চালক। ঘটনার দিন রাত্রি সাড়ে আটটা নাগাদ রান্না চলাকালীন গ্যাস সিলিন্ডারে আগুন লেগে যায় এবং তা থেকেই বিস্ফোরণ ঘটে। সেই বিস্ফোরণে রান্নাঘর এবং বাড়ি দুটি সম্পূর্ণরূপে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বাড়ির সমস্ত আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে। প্রতিবেশীরা বিস্ফোরণের শব্দ শুনে ছুটে এসে দেখেন ওই পরিবারের সকল সদস্যই আগুনে ঝলসে গেছে। ঘটনার খবর পেয়ে সিউড়ি থেকে দমকল বাহিনীর গাড়ি এসে বাড়ির আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন এবং দুর্ঘটনাগ্রস্তদের উদ্ধার করে সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রতিবেশী উদয় সিং বলেন, বিস্ফোরণের আওয়াজ শুনতে পেয়ে ছুটে গিয়ে দেখি বাড়িতে আগুন ধরে গেছে, পরিবারের সদস্যরা যন্ত্রণায় ছটফট করছে। গ্যাসের সিলিন্ডার থেকেই এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে আমাদের অনুমান।