জানা আছে কি গোলাপ জলের উপকারিতা? না থাকলে জেনে নিন এখনই

68

ডেস্ক: গোলাপ আমাদের সকলেরই খুব পচ্ছন্দের ফুল। গোলাপের অনেক উপকারিতা রয়েছে। এই গোলাপের ব্যবহার সৌন্দর্যচর্চায় দীর্ঘকাল ধরে চলে আসছে। স্বাস্থ্য রক্ষাতেও এর কোনও জবাব নেই। আপনারা কি জানেন আগেকার দিনে রাজা রানিরা দুধের সঙ্গে গোলাপের পাপড়ি দিয়ে স্নান করতেন। গোলাপ তাদের সৌন্দর্য চর্চায় কাজে লাগত। আপনাদের নিশ্চয়ই জানতে ইচ্ছে করছে গোলাপের সব অজানা রহস্যগুলো।

১) গোলাপ জল কিন্তু আমাদের স্কিনে টোনার হিসেবে কাজ করে। বাইরে থেকে কাজ করে এসে ঘরে ফিরে যখন আপনার ত্বক ক্লান্ত হয়ে পড়ে তখন কিন্তু এই গোলাপের জলই আপনাদের স্কিনে গ্লো জোগাবে।

২) গোলাপ কিন্তু ত্বকে মসৃণ রাখতে সহায়তা করে।

৩) ত্বকের স্বাভাবিক আদ্রতাও ফিরিয়ে আনে।

৪) আপনার মুখে যদি ব্রণর সমস্যা থাকে তাহলে আপনি এই প্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন। অল্প চন্দন গুঁড়ো নিন আর তাতে কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল ও টি ট্রি ওয়েল মিশিয়ে আপনার মুখে লাগিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। চন্দন ব্রণ দূর করবে। গোলাপ জল ত্বকের জ্বালাভাব ও লালচে দাগকে দূর করবে। আর টি ট্রি ওয়েল ব্রণরও দাগকে কম করবে।

৫) ঘরে বসে বানিয়ে ফেলুন রোস টোনার। একটি বাটিতে গরম জল বসান। তাতে কয়েকটি পাঁপড়ি দিন। পাঁপড়িটিকে ভাল করে ফুটতে দিন এরপর ওই গোলাপ জলের মিশ্রণকে কিছুক্ষণ ঠাণ্ডা হতে দিন। ঠাণ্ডা হয়ে আসলে আপনি একটি স্প্রে বোতলে তা ভরে নিন। এই টোনারটিকে আপনি সবসময় আপনার সঙ্গে রাখুন।
৬) গোলাপ জল চুলের জন্য উপকারি। আপনি আপনার পচ্ছন্দসই হেয়ার প্যাকে কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল দিন। আর সেই মিশ্রণটিকে আপনার চুলে মাখিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট। দেখবেন আপনার চুল শাইন করবে।

৭) গোলাপ জল কিন্তু মুখের দুর্গন্ধকে দূর করে। আপনি আপনার মাউথ ফ্রেসনারের সঙ্গে অল্প গোলাপ জল দিন। এরপর তা মুখে দিয়ে কুলকুচি করুন। দেখবেন মুখের দূর গন্ধ দূর হয়ে যাবে।

৮) ওজন কমানের জন্য গোলাপ খুব উপকারি। রোজ সকালে উঠে খালি পেটে এই জলটি খান। আপনি আপনার গ্রিন ট্রির সঙ্গে ফুটন্ত গোলাপের পাঁপাড়ির জল মিশিয়ে খান। মনে রাখবেন বেশি গরম না হয় যেন গোলাপ জলটা।