গোয়ার মত একটা ‘ফার্স্ট ক্লাস’ রাজ্যের রাজনীতিবিদরা সব একেবারে ‘থার্ড ক্লাস’: অরবিন্দ কেজরিওয়াল

24

মহানগর ডেস্ক: বছর ঘুরলেই দেশের পাঁচ রাজ্যে বাজতে চলেছে ভোটের দামামা। আর এই পাঁচ রাজ্যের তালিকায় রয়েছে উপকূলীয় রাজ্য গোয়ার নামও। আরব সাগর তীরবর্তী রাজ্যের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে পাথেয় করেই রাজনৈতিক দলগুলো নিজেদের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে মরিয়া। তাই এখন থেকেই নির্বাচনী প্রচারের ময়দানে কোমর বেঁধে নেমে পড়েছেন সমস্ত রাজনৈতিক দলের নেতা নেত্রীরা। বাদ যাচ্ছেন আম আদমি পার্টির প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়ালও।

মঙ্গলবার গোয়ায় জনসভা করেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। এদিন জনসভায় ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি ঘোষণা করেন যে যদি আপ ক্ষমতায় আসে তাহলে চাকরি না পাওয়া পর্যন্ত সেই রাজ্যের যুবকদের প্রতি মাসে ৩০০০ টাকা করে বেকার ভাতা দেবে তাঁর পার্টি। এরপর তিনি বলেন,’ দিল্লিতে মানুষ বিনামূল্যে এবং ২৪ ঘণ্টা বিদ্যুৎ পান। আপনি দিল্লিতে আপনার বন্ধু বান্ধব, আত্মীয়দের জিজ্ঞাসা করুন। তাঁরা যদি এই কথাগুলো অস্বীকার করেন তবে আমাকে ভোট দেবেন না। আমরা যুবকদের চাকরি দেব। তাঁদের চাকরি না হওয়া পর্যন্ত প্রতি মাসে ৩০০০ টাকা বেকার ভাতা দেব।’

 

তারপর তিনি বলেন,’গোয়া হল এমন একটি ‘ প্রথম শ্রেণীর রাজ্য’ যেখানকার রাজনীতিবিদরা সব ‘ থার্ড ক্লাস’। একজন মন্ত্রী যৌন কেলেঙ্কারি করেছেন, একজন ভেন্টিলেটর কেলেঙ্কারী করেছেন, একজন চাকরি কেলেঙ্কারি করেছেন, একজন মন্ত্রী নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত এবং একজন মন্ত্রী এমনকি একটি আবর্জনা কেলেঙ্কারি করেছেন আমি মনে করি গোয়ার অনেক ভাল কিছু প্রাপ্য। গত ৬০ বছরে এই রাজনৈতিক দলগুলো দুর্নীতি ছাড়া আর কী দিয়েছে আপনাদের? আম আদমি পার্টিই এই রাজ্যে প্রথম দুর্নীতিমুক্ত সরকার প্রতিষ্ঠা করবে।’