নাথুরামের মন্দির তৈরির দাবি জানিয়েছিলেন, সেই বাবুলাল যোগ দিলেন কংগ্রেসে

36
follower of naturam gpdse

মহানগর ডেস্ক:   কথায় আছে রাজনীতিতে স্থায়ী শত্রু বলে কিছু নেই। দেশেরে রাজনীতিতে প্রতি মুহূর্তে উদাহরণ পাওয়া যায়। নয়া উদাহরণ, নাথুরাম গডসের ভক্ত এবার কংগ্রেসে যোগ দিলেন। ওই ভক্ত একসময় নাথুরাম গডসের মন্দির তৈরির দাবি জানিয়েছিলেন। মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথের উপস্থিতিতে সেই বাবুল চৌরাশিয়া কংগ্রেসে যোগ দিলেন। কমলাথ তাঁর হাতে পুষ্পস্তবক তুলে দেন। কংগ্রেস টুইটার সেই ছবি প্রকাশ করেছে।

নাথুরাম গডসে ইস্যুতে বার বার হিন্দু মহাসভা কংগ্রেসের আক্রমণে পড়েছে। এমনকী বিজেপি সাংসদ একবার নাথুরাম গডসেকে দেশপ্রেমিক বলে উল্লেখ করে কংগ্রেসের সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন। সেই নাথুরাম গডসের মন্দিরের দাবি জানিয়েছিলেন বাবুলাল চৌরাশিয়া। যদিও বাবুলাল আগে কংগ্রেসেই ছিলেন। কিন্তু ভোটের টিকিট না পাওয়ার কারণে তিনি হাত ছাড়েন। হিন্দু মহাসভা থেকে তিনি প্রার্থী হয়ে ভোটে জেতেন ও কাউন্সিলর হয়। কিন্তু তিনি আবার কংগ্রেসে ফিরে এলেন।

হিন্দু মহাসভা প্রথম থেকেই গডসের মন্দির দাবি করেছিলেন। ২০১৭ সালে নিজেদের কার্যালয়ে গডসের মূর্তি বসিয়ে কার্যত মন্দিরে পরিণত করে। কিন্তু সেই মূর্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়। ২০১৯ সালে সেই মূর্তি ফেরত চায় হিন্দু মহাসভা। সেই সময় স্মারকলিপি জমা দেওয়া হয়েছিল। সেই স্মারক লিপিতে বাবুলাল চৌরাশিয়ার স্বাক্ষর ছিল বলে জানা গিয়েছে। বাবুলাল চৌরাশিয়া দাবি করেছিলেন, এক লক্ষ মানুষের কাছে গডসের শেষ বিবৃতি পৌঁছে দেবেন।

গডসের নামে হিন্দু মহাসভা একটা লাইব্রেরি খুলেছিল। সেই লাইব্রেরির নাম ছিল জ্ঞানশালা। এই লাইব্রেরি নিয়ে প্রবল বিতর্কের সৃষ্টি হয়। এই বিতর্কের জেরে বন্ধ করে দিতে হয় লাইব্রেরি। সেই সময় কমলনাথ মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানকে আক্রমণ করেছিলেন। সেই সময় কমলনাথ দাবি করেছিলেন, বিজেপি যদি মহাত্মা গান্ধিকে শ্রদ্ধা করে, তাঁর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়, তবে অবলিম্বে গডসের নামে লাইব্রেরি বন্ধ করতে হবে। এরপর তিনি বলেন, শিবরাজ সরকারের মাহাত্ম তারা গান্ধিজির খুনির উপাসনা করে। এবার বাবুলাল চৌরাশির কংগ্রেসে যোগদান নতুন করে বিতর্কের সৃষ্টি করবে।