পুলিশ ব্যারিকেডে ঝুলছে হাত-পা কাটা মৃতদেহ! দিল্লির সিংঘু সীমানায় ফের বিক্ষোভ কৃষকদের

12
Delhi
কৃষক আন্দোলন মঞ্চের কাছে উদ্ধার হল মৃতদেহ

মহানগর ডেস্ক: এক বছরের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও এখনও গোটা দেশজুড়ে চলছে কৃষক আন্দোলন। উত্তর ভারতের বিভিন্ন জায়গায় চলছে কৃষক আন্দোলন। আর তারই মধ্যে ফুটে উঠল একটি ভয়াবহ দৃশ্য। দিল্লির সিংঘু সীমানায় শুক্রবার সকালে উদ্ধার করা হয় একটি মৃতদেহ। মৃতদেহটির একটি হাত কব্জি থেকে কাটা। এমনকি গোড়ালি থেকে কেটে নেওয়া হয়েছিল পায়ের একটি পাতাও। মৃতদেহটি যেখান থেকে উদ্ধার করা হয়েছে তার অদূরেই রয়েছে কৃষক আন্দোলনের মঞ্চ। তার কাছেই পুলিশের ব্যারিকেড উল্টো করে বেঁধে দেওয়া হয়েছিল ওই মৃতদেহটি।

শুক্রবার ওই মৃতদেহ ঘিরে নতুন করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে কৃষকেরা। এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। যদিও এখনও জানা যায়নি কে বা কারা এই নৃশংস হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে যে, দেহটি ৩৫ বছরের এক যুবকের। এই ঘটনায় কৃষকদের মধ্যে ব্যাপক অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ে। শুক্রবার ভোর বেলায় দেহ উদ্ধার করা হয়। সঙ্গে একটি ভাইরালে ভিডিওতে দেখা গিয়েছে পাঞ্জাবি নিহাং সম্প্রদায় কিছু মানুষ এক যুবকের উপর অত্যাচার করছে। তারাই এই হত্যার পিছনে রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

শুক্রবার একটি বিবৃতি দিয়ে কুন্দলি থানার পুলিশ জানিয়েছে, ৩৫ বছরের এক যুবককে উদ্ধার করা হয়। শুক্রবার ভোর পাঁচটা নাগাদ এই মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়। মৃত ব্যক্তির হাত কাটা ছিল। তাঁর দেহের পাশেই সেই কাটা হাতে ঝুলিয়ে দিয়েছিল দুষ্কৃতীরা। পুলিশ দেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। ঘটনা সংক্রান্ত ভাইরাল ভিডিওর তদন্ত শুরু করা হয়েছে। এই প্রসঙ্গে পাঞ্জাবি যোদ্ধা সম্প্রদায় জানিয়েছে, ভিডিও দেখে সত্যতা যাচাই করা উচিত নয়। এছাড়াও ভাইরাল হওয়ায় ভিডিওতে দেখা গিয়েছে একটি যুবককে উল্টো করে পুলিশের ব্যারিকেডে ঝুলিয়ে দিচ্ছেন পাঞ্জাবি যোদ্ধারা। আতঙ্কে চোখ মুখ বিকৃত হয়ে গিয়েছে ওই যুবকের। তার কাটা হাত থেকে অঝরে রক্ত ঝরতেও দেখা যাচ্ছে। যদিও সাহায্যের জন্য কেউ এগিয়ে আসছে না। নির্মম হত্যাকাণ্ডের ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই আবারও অসন্তোষ সৃষ্টি হয় রাজধানীতে।