Haircare Tips: বর্ষায় রুক্ষ-শুষ্ক চুলের যত্ন নেবেন কীভাবে? জেনে নিন 

53
বর্ষায় রুক্ষ-শুষ্ক চুলের যত্ন নেবেন কীভাবে? জেনে নিন 

মহানগর ডেস্ক: বর্ষায় (Monsoon) পরিবেশ হয়ে ওঠে মনোরম। কিন্তু সেইসঙ্গে নজর দিতে হয় চুলের স্বাস্থ্যের দিকে। বর্ষায় অস্বাভাবিক ভাবে চুল পড়তে থাকে কারোর কারোর। মূলত ঘাম আর আদ্রতার ফলে খুশকি সংক্রান্ত সমস্যা দেখা যায় এই সময়। কারোর চুল কোঁকড়ানো তো কারোর ভারী, কারোর পাতলা তো কারোর খুব সাধারণ। চুলেরও রকমফের রয়েছে। আর বর্ষায় তার একটু বেশিই যত্ন নেওয়া প্রয়োজন হয়ে পড়ে। কী বলছেন বিশেষজ্ঞ? জেনে নিন।

এইসময় চুলকে জমকালো রাখতে একটু বেশি কেয়ার নিতে হয়। এই বিষয়ে অক্সিগ্লো কসমেটিকস প্রাইভেট লিমিটেডের এমডি এবং সিইও রচিত গুপ্ত বলেছেন, বর্ষায় চুলের যত্নের পদ্ধতি একটু আলাদা। চুলকে স্বাস্থ্যকর রাখতে এমন পণ্য ব্যবহার করতে হবে যা, আবহাওয়ার পরিবর্তনের দরুন হওয়া ক্ষতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে। চুল মানুষের সৌন্দর্যকে আরও বাড়িয়ে তোলে। নিয়মিত ক্লিনজিং এবং কন্ডিশনিং -র উপরে চুলের প্রোটিন ও বৃদ্ধি নির্ভর করে। সুরক্ষার জন্য প্রয়োজন একটি ভালো সিরামের। অন্য সমস্ত ঋতুর চেয়ছ বর্ষাতেই চুলের উপর প্রভাব বেশি পড়ে। তাই এই সময়ে ভেবেচিন্তে চুলের জন্য পণ্য বেছে নিতে হয়।

আরও পড়ুন : এই সমস্ত খাবার খেলে সহজেই বাড়বে ত্বকের উজ্জ্বলতা

মূলত বৃষ্টির সময় সেই জলের সংস্পর্শে আসে বাতাসের দূষণ ও টক্সিন। সেই কারণে চুল বৃষ্টির জলে ভেজাতে বারণ করা হয়। কিন্তু সব সময় বৃষ্টিকে এড়িয়ে চলা সম্ভব হয় না। তাই যদি চুল বৃষ্টিতে ভিজে যায়, তাহলে তাড়াতাড়ি তা শ্যাম্পু দিয়ে পরিষ্কার করে ফেলা উচিত। এর ফলে চুল পুষ্টি পায়। সংস্থার এমডির কথায়, শ্যাম্পু আপনার সেরা বন্ধু হতে পারে। বৃষ্টির জলের সংস্পর্শে এলেই চুলের ক্ষতি হয়। সেই কারণে ভালো মানের প্রাকৃতিক উপাদান ভিত্তিক শ্যাম্পু দিয়ে চুল এবং মাথার ত্বক সবসময় পরিষ্কার রাখা উচিত। বিশেষত প্রোটিন এবং কেরাটিন সমৃদ্ধ একটি শ্যাম্পু আপনার চুলের জন্য সবথেকে বেশি উপযোগী। এটি আপনার চুলকে পরিষ্কার রাখবে এবং ক্ষতি কম হবে।

প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, তেল হল পুষ্টি। আপনার চুলের নিয়মিত পুষ্টির জন্য তেল ব্যবহার করা প্রয়োজন। বিশেষত বর্ষা কালে এর ব্যবহার বাড়ানো উচিত। সপ্তাহে অন্তত দু’বার পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে মাথায় তেল মালিশ করা উচিত। আপনার চুলের গঠন এবং পুষ্টির চাহিদা অনুযায়ী, একটি ভালো প্রাকৃতিক তেল যেমন-আমলা, শিকাকাই, ব্রিংরাজ ,হেয়ার টনিক ও রেড অনিয়ন হেয়ার অয়েল বেছে নেওয়া সব থেকে ভালো। সঠিকভাবে এই তেল চুলে ম্যাসাজ করলে চুল পড়া রোধ হয়। সেইসঙ্গে শ্যাম্পু ব্যবহার করলে কন্ডিশনার রাখতে হয়।

চুলের গঠন অনুসারে কন্ডিশনার ব্যবহার করা উচিত। সব ধরনের চুলে কন্ডিশনিং প্রয়োজন। সেইসঙ্গে নরম ও গ্লসি চুলের জন্য হেয়ার মাস্ক বা ক্রিম ব্যবহার করা উচিত। বর্ষাকালে কেরাটিন এবং প্রোটিন সমৃদ্ধ কন্ডিশনার ব্যবহার করতে বলে থাকে বিশেষজ্ঞরা। এই আবহাওয়ায় সিরাম অতিরিক্ত সুরক্ষা দেবে আপনার চুলকে। হেয়ার সিরাম চুলকে আরও গ্লসি করে তোলে। এই সবকটি জিনিস বর্ষাকালে ঠিকভাবে ব্যবহার করলে, হাতেনাতে ফল পেতে পারেন সকলে।