‘সুব্রতদাকে দেখেই আমার রাজনীতিতে আসা’, স্মৃতিচারণা শুভেন্দুর

7

মহানগর ডেস্ক: বেশ কয়েকদিন ধরেই শারীরিক অসুস্থতার কারণে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। ধীরে ধীরে তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতিও হচ্ছিল। এমনকি কালীপুজোর দিন বাড়ি ফিরে যাবার কথা ছিল সুব্রত বাবুর। কিন্তু হঠাৎই ছবিটা সম্পূর্ণ পাল্টে গেল, সুস্থ হয়ে ওঠা হল না তাঁর। বাড়ি ফিরবে আজ তাঁর নিথর দেহ। সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের মতো একজন প্রবীণ এবং দক্ষ রাজনীতিবিদের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ বাংলার রাজনৈতিক মহল। শোক প্রকাশ করেছেন নানা বিরোধী দলনেতারাও।

ভেঙে পড়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। বারবার তাঁর মুখে শোনা গেছে সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে কাটানো একাধিক সময়ের স্মৃতি। এমনকি গোয়া সফরে যাবেন বলেছিলেন সুব্রত বাবু। সেকথাও স্মৃতিচারণায় বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সুব্রত বাবুর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে রাজনীতি করেছেন বর্তমান বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এক সময় একই দলে একই মঞ্চে থেকে কাজ করেছেন তাঁরা। দল গঠনে একে অপরের সহকর্মী ছিলেন তাঁরা। সুব্রত মুখোপাধ্যায় মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে স্মৃতিচারণা করেছেন প্রাক্তন তৃণমূল নেতা তথা বর্তমান বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

সুব্রত বাবুর মৃত্যুতে শুভেন্দু অধিকারী টুইট করে লেখেন, ‘প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও বিশ্বব্যাংকের সিনিয়র ক্যাবিনেট মন্ত্রী শ্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে আমি গভীরভাবে মর্মাহত। আমার ভাবনা তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্য, ভক্ত ও সমর্থকদের সাথে। প্রার্থনা করি, তাঁর আত্মা চির শান্তি লাভ করুক। ওম শান্তি।’ এছাড়াও শুভেন্দু অধিকারী সংবাদ মাধ্যমকে জানান, ‘সুব্রতা’দাকে দেখেই আমার রাজনীতিতে আসা৷’