‘আমি প্রমাণ করব, রাজ্য সরকার একটি মিথ্যাবাদী সরকার’, দাবি বিজেপি নেত্রী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়ালের

41

নিজস্ব প্রতিনিধি, উত্তর ২৪ পরগনা: শুক্রবার দুপুরে বারাসাত জেলা আদালতে গিয়ে ভোট-পরবর্তী হিংসায় আদালতের আইনি প্রক্রিয়া নিয়ে তৃণমূলের অবস্থান সম্পর্কে সুর চড়ালেন বিজেপি নেত্রী তথা আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়াল। এদিন আসন্ন বারাসাত জেলা বার এ্যাসোসিয়েশন ২০২২ এর নির্বাচন উপলক্ষে বিজেপির সংগঠনকে উজ্জীবিত করতে বারাসাত আদালতে উপস্থিত হয়েছিলেন বিজেপি নেত্রী তথা বিশিষ্ট আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়াল।

এদিন প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘বাংলায় যে পরিমান হিংসা বেড়েছিল, তা নিয়ে কোর্টের মাধ্যমে যেভাবে আমরা লড়াই দিয়েছি, সেই জন্য তৃণমূল থমকে গেছে। সেই জন্যই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, কোন ধরনের ঝামেলা করতে হবে না, শান্তিতে থাকুন। কোর্ট থেকে ভয় পেয়ে এই সব বলছে। এখন সিবিআই তদন্ত চলছে বলে চুপ আছে। না হলে এখনও অশান্তি করত। এখনও বারাসাতে ২৪ জন বাড়িতে ঢুকতে পারেনি। কোর্ট আমাকে অনুমতি দিয়েছে তাঁদের নাম নিয়েছি, আমি এফিডেভিট ফাইল করছি। বারাসাত তো শুধু একটা উদাহরণ, রাজ্যের অনেক জেলায় এখনও বিজেপি কর্মীরা বাড়ির বাইরে আছেন। আমি প্রমাণ করব, রাজ্য সরকার একটি মিথ্যাবাদী সরকার।’

তিনি আরও বলেন, ‘ভবানীপুরে লড়াই ছিল রাজনৈতিক। আজ বারাসাত আদালতে দাঁড়িয়ে আছি সমাজকে একটা মেসেজ দেওয়ার জন্য। আমি প্রত্যেকটি বার কাউন্সিল নির্বাচনে আমি যাব। সমাজে যদি কারোর ওপর অত্যাচার হয়, আমি একজন আইনজীবী হয়ে লড়াই করব। সমস্ত আইনজীবী ভাইদের বলছি সমাজের গরিব মানুষের জন্য লড়াই করুন, যাদের সঙ্গে অন্যায় অবিচার হচ্ছে তাদের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের জন্য লড়াই করুন।’

আগামী ৩১ জানুয়ারি ও ১ ফেব্রুয়ারী বারাসাত জেলা বার অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচন। মোট ১৩ টি আসনে নির্বাচন হবে। গত বছর ৮ টি আসন পেয়ে জয় যুক্ত হয়েছিল সিপিএম কংগ্রেস জোট, তৃণমূল পেয়েছিল ৫ টি আসন। বিজেপি কোনও আসন পায় নি। এবছর বারাসাত জেলা আদালতে বার অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচনে বিজেপির আসন সংখ্যা বাড়িয়ে জয়ী হওয়ার লক্ষ্যে কোমর বেঁধে নেমেছে বিজেপি নেতৃত্ব। শুক্রবার বারাসাত জেলা বার অ্যাসোসিয়েশনের বিজেপির সংগঠনকে উজ্জীবিত করতে উপস্থিত হন রাজ্য বিজেপির সম্পাদিকা তথা বিশিষ্ট আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়াল। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বারাসাত সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সভাপতি তাপস মিত্র।