জোর করে জমি নিলে নন্দীগ্রামের মত দেউচা-পাচামিতেও হবে আন্দোলন: শুভেন্দু অধিকারী

66

নিজস্ব প্রতিনিধি: “জোর করে জমি নিলে দেউচা-পাচামিতে নন্দীগ্রামের মত আন্দোলন হবে”, হুঁশিয়ারি দিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এদিন দেউচাতে খোলামুখ কয়লা খনি বিরোধী একটি সভা করেন তিনি৷ সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে বীরভূম জেলা পুলিশ সুপার নগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠীকেও আক্রমণ করেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বলেন, ” কি ভেবেছে এসপি নগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠী, সিউড়ির আইসি মহম্মদ আলির মত কিছু পা চাটা পুলিশ আপনাদের জোর করে উচ্ছেদ করবে। জোর করে উচ্ছেদ করলে নন্দীগ্রামে যেমন আন্দোলন করেছি তেমন করব৷”

এদিন দেউচায় মিছিল করে বিজেপি নেতা কর্মীরা, পরে সভা করেন শুভেন্দু অধিকারী, বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। একইসঙ্গে এদিনের সভা থেকে শুভেন্দু অধিকারীর জানান, বাম জমানায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে নন্দীগ্রামের জন্য লড়াই করেছিলাম। ভূমি উচ্ছেদ কমিটি তৈরি করেছি। আজ ইতিহাস মনে করাচ্ছি এই কারণে যে মমতা ব্যানার্জি একদিন নন্দীগ্রামের জন্য কেন্দ্র সরকারের আশীর্বাদ নিয়ে বাম সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করেছিল। আজ সেই মমতা ব্যানার্জি ডেউচা পাচামি মানুষদের জমি নিয়ে তাদের উচ্ছেদ করার চেষ্টায় রয়েছে।

একইসঙ্গে তিনি আরও জানিয়েছেন, বর্তমানে যে সরকার জনগণকে ভোট দিতে দেয় না, সেই সরকার অতি সহজে ভেবে নিয়েছিল ডেউচা পাচামির মানুষকে উচ্ছেদ করে দেবে। ‘ডেউচা পাচামি ক্লোজড চ্যাপ্টার’। কোনও সাধারণ মানুষের কাছ থেকে জমি নিতে পারবে না কেউ। অনিচ্ছুক কোনও মানুষকে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর করে জমি নেওয়া হয় তাহলে সংঘর্ষ কাকে বলে তাহলে নন্দীগ্রামে যা দেখেছে তার থেকেও বেশি দেখবে।

পাশাপাশি বিরোধী দলনেতা আরও জানিয়েছেন, ডেউচা পাচামিতে প্রায় ৫ হাজার পরিবারকে উচ্ছেদ করার পরিকল্পনা করেছে তোলামূল সরকার।