সীমান্তে যুদ্ধ হলে ভারতের হার নিশ্চিত, রণহুঙ্কার চীনের

31

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দীর্ঘদিন ধরে ভারত-চীন সীমান্তে উত্তেজনা অব্যাহত। এরই মাঝে সম্প্রতি রাশিয়ায় প্রথমবার মুখোমুখি বৈঠক করেন দুই দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী। এর পরেও উত্তেজনা কমা তো দূর, বরং কার্যত ভারতকে যুদ্ধের হুঙ্কার দিয়ে দিল চীন। তাদের সাফ দাবি, সীমান্তে যুদ্ধ হলে চীনের সামরিক শক্তির সঙ্গে নাকি এঁটে উঠবে না ভারত।

চীনের সরকারি মুখপাত্র গ্লোবাল টাইমসে বলা হয়েছে, ‘আমরা ভারতকে মনে করাতে চাই যে, আমাদের জাতীয় শক্তি তথা সামরিক শক্তি ভারতের থেকে অনেক বেশি। যদিও ভারত ও চীন উভয় দেশই মহাশক্তিধর। কিন্তু কমব্যাট ক্যাপাসিটির তুলনা করলে ভারতের হার নিশ্চিত। সীমান্তে যদি যুদ্ধ শুরু হয়, তাহলে ভারতের জয়ের কোনও সম্ভাবনাই নেই।’

ওই সম্পাদকীয়তে আরও বলা হয়, ‘সম্প্রতি দুই দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর মধ্যে বৈঠক হয়েছে। আশা করা যায়, এই বৈঠক ফলপ্রসূ হবে। সীমান্তে উত্তেজনা কমাতে ও দুই দেশের সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে দুই দেশকেই উদ্যোগী হতে হবে। সীমান্ত সমস্যার সঙ্গে ভারতের জনগণের মতামত অতিরিক্ত ভাবে জড়িয়ে গিয়েছে। ফলে ভারতীয় সৈনিকরাও উগ্র জাতীয়তাবাদ দ্বারা পরিচালিত। ফলে ভারতের যেমন সীমান্ত সমস্যা নিয়ে ভাবা দরকার, তেমনই দেশের জনগণ ও উগ্র জাতীয়তাবাদ সম্পর্কেও কিছু করা দরকার। সমস্যা হল, ভারত সীমান্ত নিয়ে অতিরিক্ত আগ্রাসী হয়ে উঠেছে এবং সীমান্তে শান্তি রক্ষায় চীনের প্রচেষ্টাকে ভুল বুঝছে।’