PSG vs Man City: মেসিকে পুরো সময় আটকে রাখা সম্ভব নয়, দাবি গুয়ার্দিওলার

8
হারের পর হতাশ সিটি বস পেপ গুয়ার্দিওলা।

মহানগর ডেস্ক: কেরিয়ারে কখনও ইংল্যান্ডের কোনও ক্লাবে খেলেননি লিওনেল মেসি। তবু ইংলিশ ক্লাবের বিপক্ষে তাঁর গোল ২৭টি। যার সর্বশেষটি করেছেন মঙ্গলবার রাতে, ম্যান সিটির বিপক্ষে। নতুন ক্লাব পিএসজির হয়ে প্রথম গোলটি নিজের প্রাক্তন গুরুর বিপক্ষেই করেছেন মেসি।

হারের পর ম্যান সিটি কোচ পেপ গুয়ার্দিওলা কোনও রাখঢাক না করে পরিষ্কার বললেন, ‍‘মেসির মতো খেলোয়াড়কে পুরো ৯০ মিনিট আটকে রাখা অসম্ভব, যা করতেও পারেনি আমার দল।’ হারলেও ম্যাচ শেষে শিষ্যের প্রশংসায় কার্পণ্য করেননি গুয়ার্দিওলা। তিনি বলেন, ‘প্রথমত আমরা খেলেছি পিএসজির বিপক্ষে। তবে আমরা জানি, মেসিকে পুরো ৯০ মিনিট ধরে নিয়ন্ত্রণ করা অসম্ভব। ও বলে খুব বেশি টাচ করেনি। ইনজুরি থেকে ফিরেছে, ছন্দে ফেরা দরকার ছিল। তবে আমরা জানি, ও যখন দৌড়ায় এবং বলের কাছে যায়, তখন ওকে থামানো অসম্ভব।’

মেসির প্রশংসা করে সিটিজেন কোচ আরও যোগ করেন, ‘আমরা চেষ্টা করেছি মেসিকে আটকানোর। যে সব সুযোগ আমরা তৈরি করতে পারতাম তা চেষ্টা করেছি। আমরা যেভাবে খেলেছি তাতে আমি সন্তুষ্ট।’ ম্যাচটিতে অবশ্য আক্রমণ কিংবা বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল সিটিজেনরাই। দলের খেলার সন্তুষ্টি প্রকাশ করে গুয়ার্দিওলা বলেন, ‘কেউ অস্বীকার করতে পারবে না যে আমরা এখানে ছিলাম। আমরা এখানে এসেছি এবং নিজেদের খেলা খেলেছি। সবসময়ই একটা ঝুঁকি থাকে যখন আপনি বল হারান এবং তারা একটি পাস দিতে পারে। আমরা ভালো খেলেছি। তবে গোল করা উচিত ছিল।’

প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে পিএসজির জার্সিতে প্রথম গোল করে ফেললেন লিও মেসি। ডি-বক্সের বাইরে থেকে দুর্দান্ত শটে গোলটি করেছেন তিনি। মেসির মতে, এটি ছিল একটি নিখুঁত রাত। যেখানে নিজের প্রথম গোল করে খুশি হলেও উন্নতি করে যেতে হবে বলে জানিয়েছেন আর্জেন্টাইন জাদুকর।

ম্যাচ শেষে মেসি বলেন, ‘দুর্দান্ত প্রতিপক্ষের বিপক্ষে এটি একটি নিখুঁত রাত ছিল। ক্লাব ব্রুগের সঙ্গে ড্রয়ের পর আমাদের এই জয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। গোল করতে পেরে আমি খুবই খুশি। সাম্প্রতিক সময়ে আমি খুব বেশি ম্যাচ খেলিনি। এখানে (পিএসজির মাঠে) মাত্র একটি ম্যাচ খেলেছি। আমি ধীরে ধীরে মানিয়ে নিচ্ছি। তবে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল জয়ের ধারা বজায় রাখা।’

নিজেদের খেলার আরও উন্নতির দিকে নজর দিয়ে তিনি বলেন, ‘প্রতি ম্যাচের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের সম্পর্কটাও ধীরে ধীরে ভালো হবে। আমাদের প্রত্যেককে একসঙ্গে বেড়ে উঠতে হবে, নিজেদের খেলার মান বাড়াতে হবে, ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হবে।’ তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমরা বড় প্রতিপক্ষের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ একটি ম্যাচ জিতেছি, যারা গত আসরের ফাইনাল খেলেছে। আমাদের অবশ্যই উন্নতি করে যেতে হবে। ভবিষ্যতের জন্য অনেক বিষয়ে উন্নতি করতে হবে।’